বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

কিন্তু পিটারসেনের ধারণা, আসলে গেইলকে পাঞ্জাব ব্যবহার করে ছুঁড়ে ফেলে দিচ্ছে—এমনটা মনে হওয়ার পরই গেইল পাঞ্জাবের হয়ে এবারের আইপিএলে আর না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন!

‘পাঞ্জাব দলে তাঁকে যথাযথ সম্মান দেওয়া হচ্ছে না। ওর মনে হচ্ছে, ওকে ব্যবহারের পর এখন ছুঁড়ে ফেলতে চাইছে ওরা (পাঞ্জাব)। এত দিন ওকে কাজে লাগিয়েছে, এখন ওকে বাদ দিতে চাইছে। ওর জন্মদিনে ওকে খেলায়নি, এক পাশে ফেলে রেখেছে। ও যদি খুশি না থাকে, ওর বয়স হয়ে গেছে ৪২, এখন ওর যা ইচ্ছা ওকে তা-ই করতে দিন’—স্টার স্পোর্টসে বলেছেন পিটারসেন।

default-image

পাঞ্জাবের জার্সিতে এবার ১০ ম্যাচ খেলেন গেইল, তাতে তাঁর ব্যাট থেকে এসেছে ১৯৩ রান। কোনো ফিফটি নেই, সর্বোচ্চ ইনিংস ৪৬ রানের।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে আইপিএলের দ্বিতীয় অংশ শুরুর পর রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচটা খেলেছে পাঞ্জাব। ২১ সেপ্টেম্বরের সে ম্যাচে দলে ছিলেন না গেইল। সেদিন ছিল তাঁর ৪২তম জন্মদিন।

এরপর অবশ্য টানা দুই ম্যাচে খেলেন, কিন্তু সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ও মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের বিপক্ষে সেই দুই ম্যাচে গেইলের ব্যাট থেকে এসেছে যথাক্রমে ১৪ ও ১ রান। গতকাল কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে আমিরাত অংশে পাঞ্জাব এখন পর্যন্ত ম্যাচ খেলেছে চারটি।

default-image

এবার ১০ ম্যাচে খেলা গেইল গত বছরের আইপিএলে পাঞ্জাবের হয়ে খেলেন মাত্র ৭ ম্যাচ। আরও আশ্চর্য করার মতো ব্যাপার, ২০১৯ আইপিএলে ১৩ ম্যাচে ৪৯০ রান করা গেইলকে গত মৌসুমে আইপিএলে প্রথম সাত ম্যাচে বাইরে রেখেছিল পাঞ্জাব। এর ছয় ম্যাচেই হেরেছিল বলিউড অভিনেত্রী প্রীতি জিনতার মালিকানাধীন দলটি। এরপর ফিরে ৭ ম্যাচে তিনটি ফিফটি করেন গেইল।

বিশ্বজুড়ে টি-টোয়েন্টি লিগগুলোতে ওপেন করতে নেমে ঝড় তোলা গেইলকে পাঞ্জাব ব্যাটিংয়ে নামাচ্ছে তিন নম্বরে। অধিনায়ক লোকেশ রাহুল ও ভারতের আরেক ব্যাটার মায়াঙ্ক আগারওয়াল পাঞ্জাবের হয়ে ইনিংস উদ্বোধন করেন। দুই ওপেনার ভালোই করছেন, কিন্তু গেইলকে তিনে খেলানো সেভাবে কাজে লাগছে না পাঞ্জাবের।

এসব মিলিয়েই হয়তো পিটারসেনের ধারণা হয়েছে, গেইল পাঞ্জাবে যথাযথ সম্মান পাচ্ছেন না।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন