ভারতের চোটের মিছিলে যশপ্রীত বুমরাও।
ভারতের চোটের মিছিলে যশপ্রীত বুমরাও।ছবি: এএফপি

সিডনি টেস্টে জয়ের সমান এক ড্র আদায় করে নিয়েছে ভারত। কিন্তু সে স্বাদ দিন পেরোনোর আগেই মিলিয়ে যাওয়ার দশা। একের পর এক চোট দলটিকে এমনিতেই দুর্বল করে তুলেছিল। সিডনি টেস্টেও হানা দিয়েছে চোট।

নতুন করে চোট পেয়েছেন যশপ্রীত বুমরা। ১৫ জানুয়ারি ব্রিসবেন টেস্ট থেকে নাম কাটিয়ে নেওয়া হয়েছে এই পেশারের। সিডনি টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ফিল্ডিংয়ের সময় পেটের মাংসপেশিতে টান পড়েছিল বুমরার। ব্রিসবেন টেস্টের আগে সে চোট থেকে সেরে ওঠার কোনো সুযোগ নেই।

বুমরার চোটে নিশ্চিত হওয়া গেল, সিরিজনির্ধারণী ম্যাচে নিজেদের পছন্দের পেস আক্রমণের কাউকেই পাচ্ছে না ভারত। চোটের কারণে অস্ট্রেলিয়া সফরেই যাননি ইশান্ত শর্মা। এরপর একের পর এক চোট কেড়ে নিয়েছে উমেশ যাদব ও মোহাম্মদ শামিকে। টেস্টের জন্য ভারতের পছন্দের চার পেসারের শেষজনও গ্যাবার পেস–স্বর্গে বোলিং করার সুযোগ পাচ্ছেন না।

default-image
বিজ্ঞাপন

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজনির্ধারণী ম্যাচে বুমরার অংশ না নেওয়ার খবর নিশ্চিত করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের এক সূত্র, ‘সিডনিতে ফিল্ডিংয়ের সময় পেটে টান পড়েছে যশপ্রীত বুমরার। ব্রিসবেন টেস্টে বিশ্রামে থাকবেন তিনি। ইংল্যান্ডের বিপক্ষেই ফেরার সম্ভাবনা আছে।’ অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফিরেই ইংল্যান্ড সিরিজের প্রস্তুতি নেওয়া শুরু করবে ভারত। বর্তমানে শ্রীলঙ্কা সফররত ইংলিশদের সঙ্গে চার টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচ শুরু হবে ৫ ফেব্রুয়ারি। ঘরের মাঠের সিরিজে পূর্ণ সুস্থ বুমরাকে পাওয়ার আশায় ব্রিসবেনে তড়িঘড়ি করে না নামিয়ে তাঁকে বিশ্রাম দেওয়ার চিন্তা করছে ভারত ফল।

এদিকে সিডনিতেই চোট পেয়ে পরের টেস্ট থেকে ছিটকে গেছেন রবীন্দ্র জাদেজা। ১৬১ বল অপরাজিত থেকে ভারতকে ড্র এনে দেওয়া হনুমা বিহারিও খেলছেন না সিরিজের শেষ ম্যাচে। সিডনি টেস্টের আগেই চোটের তালিকা ভারী করেছেন লোকেশ রাহুলও। তবে বুমরার চোটটাই ভারতের জন্য সবচেয়ে দুশ্চিন্তার।

একে একে পছন্দের পেসার ছিটকে পড়ায় এরই মাঝে মোহাম্মদ সিরাজ ও নবদীপ সাইনিকে অভিষেক করাতে বাধ্য হয়েছে ভারত। দুজন প্রত্যাশা মিটিয়েছেন ভারতের। এখন বুমরাও ছিটকে যাওয়ার ফলে শার্দুল ঠাকুর কিংবা টি নটরাজনকে দিয়ে সে শূন্যতা পূরণ করতে হবে। অস্ট্রেলিয়া সফর দিয়েই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষিক্ত নটরাজনের টেস্ট অভিষেক হয়ে যেতেও পারে। চাইলে ঠাকুরের ক্ষেত্রেও টেস্ট অভিষেকের তকমা দেওয়া যেতে পারে। ক্যারিয়ারে একটি টেস্ট খেললেও ২০১৮ সালের সে ম্যাচে চোটের কারণে ছিটকে পড়ার আগে মাত্র ১০ বল করেছিলেন এই পেসার।

ওদিকে রবীন্দ্র জাদেজা ছিটকে পড়ায় স্পিন আক্রমণে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের সঙ্গী হিসেবে আছেন শুধু কুলদীপ যাদব। এই রিস্ট স্পিনারকে না খেলিয়ে নটরাজন ও ঠাকুর দুজনকে নামানো যায় কি না, এমন আলোচনাও শুরু হয়ে গেছে। গ্যাবায় এখন পর্যন্ত ছয় টেস্ট খেলে কোনো জয় না পাওয়া ভারতকে তাই অনেক দুশ্চিন্তা নিয়েই মাঠে নামতে হবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন