বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

১০ উইকেট পেয়ে ইতিহাস গড়ার টেস্টে ম্যাচসেরাও হতে পারেননি এজাজ। সে গৌরব জুটেছে ভারতের প্রথম ইনিংসে ১৫০ করা মায়াঙ্ক আগরওয়ালের কপালে। এজাজ সান্ত্বনা খুঁজে নিতে পারেন এই ভেবে যে অন্তত দুই ইনিংসে ব্যাট হাতে অপরাজিত ছিলেন, অশ্বিন-অক্ষররা বাকি সতীর্থদের আউট করতে পারলেও, তাঁকে পারেননি!


নিউজিল্যান্ডের জন্য কাজটা কঠিন হয়ে গিয়েছিল প্রথম ইনিংসেই। প্যাটেলের অসাধারণ কীর্তি গড়ার পর নিজেদের প্রথম ইনিংসে কিউইরা অলআউট হয়ে গিয়েছিল মাত্র ৬২ রানে। ২৬৩ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে ভারত। ৭ উইকেটে ২৭৬ রান তুলে গতকাল দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে বিরাট কোহলির দল। নিউজিল্যান্ডের লক্ষ্য দাঁড়ায় ৫৪০ রানের। জিততে হলে পাহাড়ই ডিঙাতে হতো কিউইদের।

default-image

পাহাড় ডিঙানোর কাজে তারা যে খুব ভালো করছিল, তা বলা যাবে না। গতকাল ১৪০ রান তুলতে না তুলতে হারিয়ে বসেছিল পাঁচ উইকেট। ক্রিজে ছিলেন রাচিন রবীন্দ্র আর হেনরি নিকোলস। ভারতের জয়টা তখন সময়ের ব্যাপার বলেই মনে হচ্ছিল।


আজ নিকোলস আর রবীন্দ্র দুজন মিলে সাত ওভার কাটিয়ে ফেললেও এরপর ধস এড়াতে পারেননি। কিউইদের লেজটুকু ছেঁটে দেওয়ার মূল কাজটা আজ করেছেন ডানহাতি অফ স্পিনার জয়ন্ত যাদব। ৫২তম ওভারে যাদবের বলে টানা দুটি বাউন্ডারি মেরে রবীন্দ্র যখনই হাত খুলে খেলার আভাস দিচ্ছিলেন, তখনই আঘাত হানেন এই স্পিনার। চেতেশ্বর পূজারার হাতে রবীন্দ্রকে ক্যাচ বানিয়ে আউট করেন যাদব। ৪৮ বল খেলে ১৮ রান করেন রবীন্দ্র।

default-image

নিজের পরের ওভারেই কাইল জেমিসনকে এলবিডব্লুর ফাঁদে ফেলেন যাদব। দুই বল টিকতে না টিকতে বোল্ড হয়ে চলে যান টিম সাউদিও। শর্ট লেগে মায়াঙ্ক আগরওয়ালের হাতে ক্যাচ দিয়ে চলে যান উইলিয়াম সমারভিলও। একাকী অপর প্রান্তে থেকে সতীর্থদের আসা-যাওয়া দেখছিলেন হেনরি নিকোলস।


শেষমেশ তাঁর ধৈর্যের বাঁধও ভেঙে যায়। অশ্বিনের বলে উইকেটের পেছনে ঋদ্ধিমান সাহার হাতে ক্যাচ দিয়ে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন নিকোলস। ১৫৮ বলে ৪৪ রান করেন তিনি। আর তাতেই নিশ্চিত হয় যায় ম্যাচ তো বটেই, ভারতের মাটিতে সিরিজটাও হারল নিউজিল্যান্ড। সিরিজ সেরা রয়েছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন।


এজাজ প্যাটেল নিশ্চয়ই এ ফলের জন্য ১০ উইকেট চাননি!

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন