বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

করোনাকালে ক্রিকেটারদের অনলাইনে কোচিং করানোর জন্য জেমি সিডন্স কোচিং নামে একটি ওয়েবসাইট চালু করেছিলেন। তারই ফেসবুক পেজে আজ একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। সে পোস্টে বাংলাদেশে এসে কী করছেন, কেমন কাটছে সবকিছু, কী করতে চান—তার একটা ধারণা দিতে চেয়েছেন সিডন্স, ‘হ্যালো, বাংলাদেশে এসে গত তিন চার সপ্তাহ কী করেছি, তার হালনাগাদ দিতে এলাম। আমি এখন চট্টগ্রামে আছি, আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ খেলছি। গতকাল প্রথম ম্যাচ খেলেছি, অবিশ্বাস্য এক ম্যাচ ছিল।’

বাংলাদেশে এসেই নিজের পুরোনো ছাত্রদের সঙ্গে দেখা করেছেন সিডন্স। মাশরাফি, তামিম, সাকিবদের তারকা হয়ে ওঠার যাত্রার সঙ্গী এই কোচ এবার বাংলাদেশে এসে ভেন্যু থেকে ভেন্যুতে গিয়ে দেখেছেন বিপিএল। এরপরই ধাক্কা খেয়েছেন একটা। ভিডিওতে সিডন্স বলেছেন এ নিয়েই, ‘প্রথম ১০ দিন দারুণ কেটেছে। টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট যাকে আমরা বিপিএল বলি, সেটা দেখছিলাম। অনেক খেলোয়াড়ের সঙ্গে দেখা করেছি। খুবই উন্নত মানের ক্রিকেট দেখেছি এবং এরপর করোনা হলো। তাই পরের ১০ দিন হোটেল রুমে সঙ্গনিরোধ অবস্থায় ছিলাম। করোনা থেকে সেরে ওঠার চেষ্টা করছিলাম, তার চেয়েও বেশি চেষ্টা করছিলাম এর (সঙ্গনিরোধ অবস্থার) একঘেয়েমি কাটাতে। এখানে আমার শুরুটা এমনই হলো, দুর্ভাগ্যজনকভাবে দ্রুতই করোনায় সংক্রমিত হলাম। আশা করি, এর মধ্য দিয়ে আর যেতে হবে না। এখন আমরা চট্টগ্রামে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একটা সিরিজ খেলছি।’

default-image

নিজের ব্যস্ততা ও কাজ নিয়ে কথা বলতে চাইলেও গতকালের ম্যাচ নিয়েই বেশি বলেছেন সিডন্স। যাঁদের নিয়ে কাজ করবেন, তাঁদের সম্পর্কে দুই ধরনের বার্তা পেয়েছেন কাল। আফগানিস্তানের বিপক্ষে গতকাল ২১৬ তাড়া করতে নেমে ৪৫ রানে ৬ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। টপ অর্ডার ও মিডল অর্ডারের এই ব্যর্থতার পরও বাংলাদেশকে ম্যাচ জিতিয়ে ফিরেছেন আফিফ হোসেন (৯৩*) ও মেহেদী হাসান মিরাজ (৮১*)।

ব্যাটিং কোচ হিসেবে সিডন্সের তাই মিশ্র অনুভূতি হয়েছে, ‘গত রাতে আমাদের প্রথম ম্যাচ ছিল। জাতীয় দলের সঙ্গে একটা অনুশীলন সেশন শেষেই আমরা প্রথম ম্যাচ খেলেছি। গত রাতে আমরা শেষ পর্যন্ত বেশ সহজে জিতেছি, কিন্তু শুরুটা খুব কঠিন ছিল যখন ৪০ (৪৫ রানে) রানে ৬ উইকেট পড়ে গিয়েছিল। ব্যাটিং কোচের জন্য তা ভালো খবর নয়, কিন্তু মিরাজ ও আফিফ নামের দুই তরুণ ব্যাটসম্যান ১৬০ রানের (১৭৪ রান) জুটি গড়ে ১০-১৫ বল আগেই দলকে জয় এনে দিয়েছে।’

default-image

আগামীকাল সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। এ ম্যাচে নিজের পুরোনো ছাত্রদের কাছে ভালো কিছু দেখতে চান ব্যাটিং কোচ, ‘সিরিজের শুরুটা দুর্দান্ত এক জয় দিয়ে হলো। আশা করি, আগামীকাল তুলনামূলক সহজ ম্যাচই পাব। আপাতত এতেই ব্যস্ত ছিলাম। দারুণ কিছু প্রতিভা আছে এখানে। কাল রাতে ছেলেরা যেভাবে খেলেছে, ভালো লেগেছে। আমি নিশ্চিত এই তরুণ ক্রিকেটারদের কাছ থেকে এমন আরও ইনিংস পাওয়া যাবে এবং অভিজ্ঞরাও এগিয়ে আসবে। বাংলাদেশে তারকা আছে। সাকিব, তামিম, মুশফিক, রিয়াদের (মাহমুদউল্লাহ) মতো আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের তারকা এই সিরিজে কখনো না কখনো জ্বলে উঠবেই। আশা করি, আগামীকালই। দেখতে থাকুন।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন