বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

মেয়েদের বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব হচ্ছে জিম্বাবুয়েতে। আগামী ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত হওয়ার কথা ছিল সেটি। বাছাইপর্বে সুপার সিক্সের পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষ তিনে থাকলে চূড়ান্ত পর্বে সুযোগ পেত দলগুলো। পরের দুটি দল সুযোগ পেত আইসিসি উইমেন্স চ্যাম্পিয়নশিপের পরের চক্রে।

কিন্তু আজ বাছাইপর্ব বাতিল হয়ে গেল প্রথম পর্বের মাঝপথেই। আর সেটি সুপার সিক্সে ওঠা ঝুলে থাকা বাংলাদেশের জন্য আশীর্বাদ হয়েই এল। বাংলাদেশকে হারিয়ে সুপার সিক্সে ওঠার কাজ এগিয়ে রাখা থাইল্যান্ডের জন্য অবশ্য দুঃসংবাদ হয়ে এসেছে খবরটি।

default-image

আইসিসি জানিয়েছে, বাছাইপর্ব বাতিল হওয়ায় র‌্যাঙ্কিংয়ের হিসাবে বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ সুযোগ পাবে আগামী বিশ্বকাপে। এই তিন দলের সঙ্গে শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ড খেলবে ২০২২-২৫ চক্রের আইসিসি উইমেন্স চ্যাম্পিয়নশিপে।
২০২২ মেয়েদের বিশ্বকাপে খেলবে আটটি দল। স্বাগতিক হিসেবে নিউজিল্যান্ড ও উইমেন্স চ্যাম্পিয়নশিপের আগের চক্রের ফলের ভিত্তিতে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ভারতেরও চূড়ান্ত পর্ব নিশ্চিত হয়েছে আগেই। এই পাঁচ দলের সঙ্গে যোগ হবে বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ। চূড়ান্ত পর্বে আটটি দল লিগ পদ্ধতিতে খেলবে। পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ চার দল যাবে সেমিফাইনালে। ৪ মার্চ শুরু বিশ্বকাপের ফাইনাল ৩ এপ্রিল।

আইসিসির হেড অব ইভেন্টস ক্রিস টেটলি জানিয়েছেন, বিভিন্ন দেশ আফ্রিকার দক্ষিণাঞ্চলের দেশগুলোর সঙ্গে বিমান যোগাযোগ বন্ধ করার সিদ্ধান্তের কারণেই মূলত স্থগিত করা হয়েছে বাছাইপর্ব, ‘বাছাইপর্ব বাতিল হওয়ায় আমরা খুবই হতাশ। কিন্তু আফ্রিকার কিছু দেশের ওপর হঠাৎ ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে অনেক দেশ। ফলে দলগুলোর বাড়ি ফেরা নিয়ে সংকট তৈরি হচ্ছে। আমরা বিকল্প কিছু করা যায় কি না, তা নিয়ে ভেবেছি, তবে সেগুলো বাস্তবসম্মত মনে হয়নি। আমরা এখন দলগুলোকে যত দ্রুত সম্ভব জিম্বাবুয়ের বাইরে নেওয়ার ব্যবস্থা করব।’

আজ বাছাইপর্বের নির্ধারিত তিন ম্যাচের দুটি সময়মতোই শুরু হয়েছিল। তবে শ্রীলঙ্কা নারী দলের সঙ্গে থাকা একজন কর্মীর করোনা পজিটিভ হওয়ায় বাতিল হয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও শ্রীলঙ্কার ম্যাচ। তবে দিন শেষ না হতেই বাতিল হয়ে গেল পুরো টুর্নামেন্টই।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন