খালেদের সঙ্গে উইকেটের উদ্‌যাপন রিশাদের।
খালেদের সঙ্গে উইকেটের উদ্‌যাপন রিশাদের।ছবি: প্রথম আলো

মূল টেস্ট দলে চার স্পিনারের চারজনই ফিঙ্গার স্পিনার। ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের বিপক্ষে তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশে তাই কোনো ফিঙ্গার স্পিনারই রাখেননি বিসিবি নির্বাচকেরা। রেখেছেন একজন তরুণ লেগ স্পিনার রিশাদ হোসেনকে। সেই রিশাদের লেগ স্পিন খেলতেই হিমশিম খেল সফরকারী দলের ব্যাটসম্যানরা।

আজ এম এ আজিজ স্টেডিয়ামের তিন দিনের ম্যাচের প্রথম দিনে রিশাদ একাই নিয়েছেন ৫ উইকেট। ৩ উইকেট টেস্ট দলের পেসার খালেদ আহমেদের। ওয়েস্ট ইন্ডিজ অলআউট ২৫৭ রানে।

দিনের শেষ বেলায় বিসিবি একাদশ নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ৮ ওভারে ২৪ রান তুলেছে। ১৫ রানে ব্যাট করে অপরাজিত আছেন সাইফ হাসান। আরেক ওপেনার সাদমান ইসলাম খেলছেন ৩ রানে।  

বিজ্ঞাপন

সকালে মরা ঘাসের উইকেটে টসে জিতে ব্যাটিং বেছে নিয়েছিলেন ক্যারিবীয় অধিনায়ক ব্রাফেট। প্রথম সেশনে দাপটও দেখায় ব্রাফেট-জন ক্যাম্পবেলের ওপেনিং জুটি। খালেদ আহমেদ ও মুকিদুল ইসলাম ভালো বোলিং করেছেন, কিন্তু উইকেট পাননি। কিন্তু মনোযোগ হারিয়ে পার্টটাইমার শাহাদাত হোসেনের নিরীহ অফ স্পিনে ক্যাচ তুলে আউট হন ক্যাম্পবেল।

default-image

বড় বিপদ ঘটে মধ্যাহ্নবিরতির পর। এক প্রান্ত থেকে খালেদ, আরেক প্রান্ত থেকে রিশাদ—দুজন মিলে যেন চেপে ধরেন ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যানদের। দলের রান ১১৫ থেকে ১৩১ রানে যেতেই চার উইকেট হারিয়ে বসেন সফরকারীরা। খালেদ দুটি ও রিশাদ দুটি উইকেট নেন। এরপর উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান জশুয়া ডা সিলভাকে নিয়ে দলের হাল ধরেন অধিনায়ক ব্র্যাফেট। ৩৪ রানের একটি ছোট জুটিও গড়েন। কিন্তু স্পিনেই পথ হারান অনভিজ্ঞ সিলভা। ছক্কা মারতে গিয়ে আউট হন সাইফ হাসানের অফ স্পিনে।

তবু ব্রাফেট টিকে থেকে লড়ে যান। সপ্তম উইকেটে কাইল মেয়ার্সকে নিয়ে আরও ৫৩ রানের জুটি গড়েন। মেয়ার্সই অবশ্য জুটিতে বড় অবদান রাখেন। ৪০ রান আসে তাঁর ব্যাট থেকে। এরপর সেই রিশাদের বলে লাইন মিস করে বোল্ড হন। শেষে নেমে আলজারি জোসেফ দ্রুত ২৫ রান তুলে বিদায় নেন রিশাদের চতুর্থ শিকার হয়ে। শেষে আরেক পেসার শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের উইকেট তুলে রিশাদ পূর্ণ করেন তাঁর পাঁচ উইকেট।

default-image

এর কিছুক্ষণ আগেই ভালো লেংথ থেকে ভেতরে ঢোকা বলে সেঞ্চুরির পথে এগোতে থাকা ব্র্যাফেটকে সাজঘরে ফেরান খালেদ। ৮৫ রানে শেষ হয় তাঁর লড়াই। ১৮৭ বলে ১০টি চারের সাহায্যে নিজের ইনিংসটি সাজান অধিনায়ক।

শেষ বেলায় ব্যাটিং করতে নামেন বিসিবি একাদশের দুই ওপেনার সাইফ হাসান ও সাদমান ইসলাম। ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুই পেসার শ্যানন গ্যাব্রিয়েল ও কেমার রোচের বলে কিছু চোখজুড়ানো শট খেলেন সাইফ। সাদমান ছিলেন সতর্ক। ছেড়ে খেলে দিন শেষ করেন তিনি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ২৫৭ (ব্র্যাফেট ৮৫, ক্যাম্পবেল ৪৪, মোসলে ১৫, বোনার ২, ব্ল্যাকউড ৯, হজ ০, ডা সিলভা ২০, মেয়ার্স ৪০, জোসেফ ২৫, রোচ ৫*, গ্যাব্রিয়েল ৪; খালেদ ৩/৪৬, রিশাদ ৫/৭৫)।


বিসিবি একাদশ: ৮ ওভারে ২৪/০ (সাইফ ১৫, সাদমান ৩; রোচ ০/৫, গ্যাব্রিয়েল ০/৮)।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন