default-image

রোহিত শর্মা আবারও জানান দিলেন তিনি কী! হোক না এটা প্রস্তুতি ম্যাচ। কিন্তু ভারতের এই ব্যাটসম্যান যে লম্বা হাতে ব্যাট চালাতে পারেন, সেটাই যেন আজ আবারও প্রমাণিত হলো। সেই সঙ্গে অন্যদের জন্য সতর্কবাণীও এল—এবারের বিশ্বকাপে যেকোনো দলের বিপক্ষেই দুঃস্বপ্ন হয়ে উঠতে পারেন রোহিত শর্মা।
আফগানিস্তানের বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ৩৬৫ রানের পাহাড় গড়েছে ভারত। ভারতের এই সংগ্রহে বড় অবদান ওই রোহিতেরই। ১২২ বলে ১২ চার ও সাত ছয়ে তাঁর ব্যাট থেকে এসেছে ১৫০ রানের অনবদ্য এক ইনিংস।
রোহিতের পাশাপাশি ৮৮ রান এসেছে অজিঙ্কা রাহানের ব্যাট থেকে। সুরেশ রায়না খেলেছেন ৭৫ রানের ইনিংস। আফগানিস্তানের বিপক্ষে আজ নীরব ছিল হালের সেনসেশন বিরাট কোহলির ব্যাট। মাত্র ৫ রানেই সাজঘরমুখী হয়েছেন তিনি।
টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমেই কিছুটা বিপদে পড়ে ভারত। তৃতীয় ওভারের প্রথম বলেই ব্যক্তিগত মাত্র ৪ রানের সংগ্রহ নিয়ে সাজঘরে ফেরেন ওপেনার শিখর ধাওয়ান। হামিদ হাসানের চমৎকার ডেলিভারিটি ধাওয়ানের প্যাড ছুঁয়ে আঘাত হানে স্টাম্পে। ক্ষণিকের বিরতিতেই আবার উইকেটের পতন। চতুর্থ ওভারের শেষ বলটিতে উইকেটরক্ষক জাজাইয়ের হাতে ক্যাচ তুলে দেন কোহলি।
এর পরের গল্পটা অবশ্য ভারতের ঘুরে দাঁড়ানোরই। ব্যাট হাতে হাল ধরেন রোহিত শর্মা এবং সুরেশ রায়না। উনত্রিশতম ওভারে ৭৫ রানে রায়না যখন নবীর হাতে রানআউট হলেন, দলীয় সংগ্রহ তখন ৩ উইকেটে ১৭৪। অপরপ্রান্তে রোহিত কিন্তু চালিয়ে গেছেন তাঁর তাণ্ডব। যদিও দলীয় ১৯৭ রানের সময়ে জাভেদ আহমাদির হাতে জীবন পেয়েছিলেন তিনি; কিন্তু নিজের সংগ্রহ দেড় শ ছুঁইয়েই সাজঘরে ফেরেন রোহিত। শেষের দিকে ধোনির ১০ আর জাদেজার ১১ রানে দলীয় রানটা সাড়ে তিন শ ছাড়িয়ে আরও কিছু দূরে নিয়ে ফেলে ভারত।
সময়টা খুব ভালো যাচ্ছে না ধোনিদের। আফগানদের বিপক্ষে আজকের ম্যাচটা তাই বেশ গুরুত্বপূর্ণই। গত তিন মাসে যাঁদের একটিও জয় নেই, বিশ্বকাপের আগে একটি জয় তাঁদের আত্মবিশ্বাস নিশ্চয়ই ওপরে নিয়ে যাবে; হোক না প্রতিপক্ষ দুর্বল আফগানিস্তান। সূত্র : স্টারস্পোর্টস।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন