লঙ্কান 'ওয়ার্নিং', ঘুম ভাঙবে বোলারদের?

বিজ্ঞাপন
default-image

এসএ গেমস ক্রিকেটে কাল ছেলেদের ফাইনালে শ্রীলঙ্কা অনূর্ধ্ব-২৩ দলের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল। তার আগে আজ গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল দুই প্রতিপক্ষ। ম্যাচটা তাই এক অর্থে ফাইনালের মহড়াই। আর এ মহড়াতেই বাংলাদেশকে সতর্কবার্তা দিয়ে রাখল শ্রীলঙ্কা। সাইফ-ইয়াসিরদের গড়া ৬ উইকেটে ১৫০ রানের পুঁজি ২৩ বল হাতে রেখেই টপকে গেছে লঙ্কানরা।

অবশ্য এ হারে বলসংখ্যার চেয়ে উইকেটের ব্যবধানটা চোখে বেশি করে বিঁধবে। মোট সাতজন বোলার ব্যবহার করেছেন নাজমুল হোসেন শান্তর অনুপস্থিতিতে নেতৃত্ব দেওয়া সাইফ হাসান। কিন্তু এই সাত বোলার মিলে লঙ্কানদের মাত্র ১টি উইকেট ফেলতে পেরেছে! স্বাভাবিকভাবেই বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দলের বোলারদের সামর্থ্য নিয়ে ওঠা প্রশ্নটা আরও বড় হচ্ছে। কারণ আগের দুই ম্যাচে নেপাল ও ভুটানের মতো দলকেও অলআউট করতে পারেননি তারা। শ্রীলঙ্কা অনূর্ধ্ব-২৩ দল শক্তিশালি হলেও ৯ উইকেটের হারে বোলারদের খামতিটা মূলত স্পষ্ট।

>

এসএ গেমস ছেলেদের ক্রিকেটে শ্রীলঙ্কা অনূর্ধ্ব-২৩ দলের কাছে ৯ উইকেটের ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল

বাঁ হাতি পেসার মেহেদী হাসান রানা দ্বিতীয় ওভারে তুলে নেন ওপেনার নিশান মাদুস্কাকে। শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ তখন ১ উইকেটে ১৭। বোলারদের এই যা সাফল্য। বাকি সময়টুকুতে পাথুম নিশাঙ্কা (৬৭) ও লাসিথ ক্রোসপুলির (৭৩) সামনে অসহায়ই বোধ করেছেন বোলাররা। ৮৬ বলে ১৩৪ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে ১৬.১ ওভারেই দলের জয় নিশ্চিত করেন লঙ্কান এ দুই ব্যাটসম্যান। মেহেদী হাসান রানা উইকেট পেলেও ৩ ওভারের স্পেলে গড়ে ১৪-র ওপর রান দিয়েছেন। জাতীয় দলে খেলা স্পিনার মেহেদী হাসান সে তুলনায় নিয়ন্ত্রিত ছিলেন। ৩.১ ওভারে ১৫ রান দেন তিনি। কিন্তু বেশ ভালো পুঁজি নিয়েই বোলাররা লড়াই করতে পারেনি।

ফাইনালে চাঙা থাকতেই সম্ভবত আজ শুধু আনুষ্ঠানিকতার ম্যাচটা খেলেননি সৌম্য সরকার ও নাজমুল হোসেন শান্ত। কাল ফাইনালটা যে মোটেও সহজ হবে তা কিন্তু আজই পরিষ্কার হয়ে গেল।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন