বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ক্রিকেটে এমনিতেই ‘টাইম আউট’ বলে একটা নিয়ম আছে। এমসিসির আইনের ৪০.১.১ ধারা অনুযায়ী, কোনো ব্যাটসম্যান আউট হলে বা চোট পেয়ে উঠে যাওয়ার তিন মিনিটের মধ্যে পরের ব্যাটসম্যানকে ক্রিজে এসে গার্ড নেওয়ার অবস্থানে থাকতে হবে। না হলে সে ব্যাটসম্যান ‘টাইম আউট’ হয়ে ফিরে যাবেন।

default-image

বিগ ব্যাশের জন্য ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া এ সময়সীমা কমিয়েছে আগেই। তাদের প্লেয়িং কন্ডিশন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যাটসম্যানের ৬০ সেকেন্ড বা ১ মিনিটের মধ্যে ক্রিজে থাকার নিয়ম। তবে বাস্তবে এ নিয়মের প্রয়োগ দেখা যায়নি। এমনকি আগের ব্যাটসম্যান ক্রিজ ছাড়ার ২ মিনিট পরও পরের ব্যাটসম্যান ক্রিজে আসার ঘটনা আছে।

এই বিলম্বটাই সরিয়ে দিতে ৭৫ সেকেন্ডের সময়সীমা বেঁধে দিতে চায় বিগ ব্যাশ। সেই ৭৫ সেকেন্ড অতিবাহিত হলে টাইম আউট বলে আর কিছু থাকবে না, সে ক্ষেত্রে বোলার পাবেন ফ্রি ডেলিভারি। যদিও এমন নিয়ম শুধু খেলার গতি আরেকটু বাড়ানোর জন্যই, এমনিতেই ব্যাটসম্যানরা সতর্ক থাকবেন বলে বাস্তবে ‘ফ্রি ডেলিভারি’ দেখার সম্ভাবনা কম। ম্যাচ অফিশিয়ালরা নিয়মিতই নতুন ব্যাটসম্যানকে সময়ের ব্যাপারে সতর্ক করবেন, মাঠে ‘জায়ান্ট স্ক্রিন’ বা বড় পর্দাতেও দেখানো হতে পারে ‘স্টপক্লক’। এ সপ্তাহেই খেলোয়াড়দের নতুন নিয়মের প্রস্তাব পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে ক্রিকেটডটকমডটএইউ। ছেলে ও মেয়েদের বিগ ব্যাশে কার্যকর হতে পারে এ নিয়ম।

বিগ ব্যাশের এ সংস্করণে ব্যাটসম্যানদের পানি পান বা গ্লাভস বদলের ক্ষেত্রেও সময় নির্ধারণ করে দেওয়া হতে পারে। যেকোনো ওভার শেষের বদলে ৫ম, ১০ম বা ১৫তম ওভার শেষেই শুধু এ সুযোগ পেতে পারেন ব্যাটসম্যানরা।

default-image

ম্যাচ আরও দ্রুতগতির করতে ইংল্যান্ডের নতুন চালু হওয়া ‘দ্য হানড্রেড’-এ দেখা গিয়েছিল নতুন নিয়ম। একটা নির্দিষ্ট সময়ে ওভার-রেটে পিছিয়ে থাকলে পরবর্তী সময়ে একজন বাড়তি ফিল্ডারকে বৃত্তের ভেতর আনতে হতো। তবে বিগ ব্যাশে এ সংস্করণে তেমন কিছু দেখা যাওয়ার সম্ভাবনা নেই।

বিগ ব্যাশের গত সংস্করণে অবশ্য দেখা গিয়েছিল পাওয়ার-সার্জ, এক্স ফ্যাক্টর ও ব্যাশ বুস্ট নামে নতুন তিন নিয়ম। পাওয়ার প্লেকে ৪ ও ২ ওভারের দুটি ভাগে ভাগ করা হয়েছিল, পরের ২ ওভার ইনিংসের ১১তম ওভারের পর যেকোনো সময় নিতে পারে ব্যাটিং দল। পরের দুই ওভারের নাম পাওয়ার-সার্জ। এক্স ফ্যাক্টর ক্রিকেটের ‘সুপার-সাব’-এরই আরেক সংস্করণ। আর রান তাড়ায় ১০ ওভার শেষে আগে ব্যাটিং করা দলের ওই সময়ের রানের চেয়ে এগিয়ে থেকে ম্যাচ জিতলে বোনাস পয়েন্ট পাওয়ার নিয়মকে বলা হয় ব্যাশ বুস্ট।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন