বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মাঠে দর্শক মানেই আনন্দ-উচ্ছ্বাস। জাতীয় পতাকা, দর্শকদের আবেগঘন চিৎকার। ঢাকার মাঠে খেলাটা যেকোনো বিদেশি দলের জন্যই কিছুটা চ্যালেঞ্জের। কাল পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে মাঠে নামবে। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের পঞ্চাশ শতাংশ আসনও যদি ভরে যায়, তারপরেও সেই সংখ্যাটি বাংলাদেশের সমর্থনে এতটুকু ভাটা পড়তে দেবে না। এটা নিশ্চিত করেই বলা যায়।

default-image

পাকিস্তান ক্রিকেট দল অবশ্য মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের দর্শক-সমর্থন নিয়ে মোটেও ভাবছে না। অধিনায়ক বাবর আজম সোজা-সাপ্টাই জানিয়ে দিয়েছেন ঢাকার মাঠে সমর্থনহীন পরিবেশ নিয়ে তিনি চিন্তাই করছেন না। ভাবছেন না বাংলাদেশের দর্শক-সমর্থন নিয়েও, ‘করোনাভাইরাসের পর এখানে প্রথমবার মাঠে দর্শক প্রবেশের অনুমতি মিলেছে, এটা দারুণ ব্যাপার। দল হিসেবে আমরা উপভোগ করব।’

বাংলাদেশের দর্শকেরা দুই দলকেই সমর্থন দিতে জানে বলেই মনে করেন পাকিস্তান অধিনায়ক, ‘অনুশীলন, টিম বাসে যাতায়াতের সময় দেখেছি লোক দাঁড়িয়ে থাকতে। হাত নাড়িয়েছে, সমর্থন দিয়েছে। এখানে আমাদেরও অনেক সমর্থন আছে বলেই মনে হয়। বাংলাদেশে আমরা যখনই এসেছি, পাকিস্তান দলকেও তারা বেশ সমর্থন করেছে। এটা আমাদের বেশ ভালো লাগে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন