বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের আগে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলার কথা আছে বাংলাদেশের। সেখানে হবে তিনটি ওয়ানডে। ২০২০ সালের মার্চে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছিল বাংলাদেশ। এরপর আর সালমা খাতুন, জাহানারা আলমরা জাতীয় দলের হয়ে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেননি।

বাংলাদেশের মেয়েরা সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছিলেন ২০১৯ সালের ৪ নভেম্বর। মাঝে দক্ষিণ আফ্রিকা ইমার্জিং দলের বিপক্ষে অবশ্য বাংলাদেশ ইমার্জিং দলের হয়ে খেলেছিলেন জাতীয় দলের প্রায় সব খেলোয়াড়ই।

২০২০ সালে নিউজিল্যান্ডে হওয়ার কথা ছিল মেয়েদের ওয়ানডে বিশ্বকাপ। বাছাইপর্ব হওয়ার কথা ছিল শ্রীলঙ্কায়। তবে করোনাভাইরাসের কারণে স্থগিত হয়ে যায় দুটি টুর্নামেন্টই। বাছাইপর্ব শ্রীলঙ্কা থেকে সরিয়ে জিম্বাবুয়েতে সরিয়ে নেওয়া হলেও ২০২২ সালের ৪ মার্চ থেকে ৩ এপ্রিল নিউজিল্যান্ডেই হবে এবারের বিশ্বকাপের মূল আসর।

২০১৪ সাল থেকে প্রতিবারই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেললেও মেয়েদের ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ খেলেনি একবারও।

default-image

বাংলাদেশ ছাড়াও বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে খেলবে পাকিস্তান, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ড। সঙ্গে থাকবে আইসিসির আঞ্চলিক বাছাইপর্ব পেরিয়ে আসা আরও পাঁচটি দল—স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে (আফ্রিকা), থাইল্যান্ড (এশিয়া), পাপুয়া নিউগিনি (পূর্ব-প্রশান্ত), নেদারল্যান্ডস (ইউরোপ) ও যুক্তরাষ্ট্র (আমেরিকা)। বাছাইপর্ব থেকে বিশ্বকাপে সুযোগ পাবে তিনটি দল।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে বাংলাদেশের প্রাথমিক দল
মুরশিদা খাতুন, শামীমা সুলতান, নিগার সুলতানা, ফারজানা হক, রুমানা আহমেদ, রিতু মনি, নাহিদা আক্তার, সালমা খাতুন, জাহানারা আলম, লতা মন্ডল, সুরাইয়া আজমিন, নুজহাত তাসনিয়া, ফাহিমা খাতুন, ফারিহা ইসলাম, সানজিদা আখতার, সোবহানা মোস্তারি, খাদিজা-তুল কুবরা, শারমিন আক্তার, পূজা চক্রবর্তী ও দিশা বিশ্বাস।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন