বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

পাকিস্তানের ক্রিকেট ইতিহাসে ইমরান খান অদ্বিতীয়। এর পেছনে ১৯৯২ বিশ্বকাপ জয় ও সে বিশ্বকাপে তাঁর নেতৃত্বই মূল ভূমিকা রেখেছে। কিন্তু এ অর্জনের আড়ালে আছে অনেক হতাশার গল্পও। ১৯৮৭ বিশ্বকাপেও শিরোপা জয়ের পথে অনেক দূর এগিয়ে গিয়েছিল পাকিস্তান। কিন্তু সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয়েছিলেন ইমরানরা। লাহোরে ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২৬৮ রানের লক্ষ্য ছুঁতে পারেনি পাকিস্তান।

default-image

৫৮ রান করে অ্যালান বোর্ডারের বলে ইমরানের আউট হয়ে যাওয়ার পরই লক্ষ্যচ্যুত হয়েছিল পাকিস্তান। প্রায় তিন যুগ পর আবার সেই অস্ট্রেলিয়ার কাছেই স্বপ্নভঙ্গ হলো পাকিস্তানের। বাবর আজমদের দুঃখটা ভালোই বোঝেন ইমরান খান। গতকাল ম্যাচের পরই আর দেরি করেননি সাবেক অধিনায়ক ও প্রধানমন্ত্রী।

default-image

টুইট করেছেন দলের উদ্দেশে। ফাইনালে উঠতে ব্যর্থ হলেও এ বিশ্বকাপ থেকে পাকিস্তান যে খালি হাতে ফিরছে না, সেটা জানিয়ে দিয়েছেন ইমরান, ‘বাবর আজম ও তাঁর দলের প্রতি: তোমাদের এখন কেমন লাগছে, এটা আমি ভালোভাবেই জানি। কারণ, ক্রিকেট মাঠে এমন হতাশার মধ্য দিয়ে আমাকেও যেতে হয়েছে। কিন্তু যে মানের ক্রিকেট খেলেছ এবং জয়ের পর যে বিনয় দেখিয়েছ, তাতে তোমাদের গর্ব করা উচিত।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন