বিপিএলে টিকিটের দাম কমতেও পারে যদি…

বিজ্ঞাপন
default-image
>বিপিএলে এবার বড় বড় তারকা নেই। মাঠের খেলা যদি দারুণ জমে ওঠে তবেই হয়তো দর্শক আসতে পারেন মাঠে। কিন্তু দর্শকদের মাঠে টানতে টিকিটের দাম খুব একটা উৎসাহব্যঞ্জক নয়

স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার, এবি ডি ভিলিয়ার্স, কাইরন পোলার্ড, অ্যালেক্স হেলস, রশিদ খান, ব্রেন্ডন ম্যাককালাম, সুনিল নারাইনদের মতো তারকা ক্রিকেটাররা তো ছিলেনই; কোচদের মধ্যে টম মুডি, মাহেলা জয়াবর্ধনের মতো তারকা কোচরাও রাঙিয়ে গেছেন আগের দুটি বিপিএল

এবার বড় বড় তারকা নেই। মাঠের খেলা যদি দারুণ জমে ওঠে তবেই হয়তো দর্শক আসতে পারেন মাঠে। কিন্তু দর্শকদের মাঠে টানতে টিকিটের দাম খুব একটা উৎসাহব্যঞ্জক নয়। গত সেপ্টেম্বরে ঘরের মাঠে একটি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি সিরিজেও যেখানে টিকিটের সর্বনিম্ন দাম রাখা হয়েছিল ১০০ টাকা, সেখানে বিপিএলে টিকিটের দাম রাখা হচ্ছে ২০০ টাকা। অথচ বিসিবি আগেই জানিয়েছিল, যেহেতু বঙ্গবন্ধুর নামে বিশেষ টুর্নামেন্ট হচ্ছে, এবারের বিপিএলে আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার কোনো লক্ষ্য নেই তাদের। তবুও কেন টিকিটের দাম একটু বেশি হলো?

বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন বলছেন, টিকিটির দাম তাঁরা নির্ধারণ করে দেন না। যে প্রতিষ্ঠানকে টিকিট বিক্রির দায়িত্ব দেওয়া হয় তারাই ঠিক করে। তবে মাঠে যদি দর্শক প্রত্যাশা অনুযায়ী না হয়, টিকিটের দাম পুনর্বিবেচনা করার কথা ভাববেন তাঁরা, ‘আমরা আগে দেখি তো, কাল টুর্নামেন্ট শুরু হচ্ছে। সাড়া কেমন হয় সেটি দেখে পুনরায় বিবেচনা করার কোনো সুযোগ থাকলে অবশ্যই দেখব।’

মাঠের বাইরে হাজার হাজার দর্শক খেলা দেখবেন টিভি কিংবা ইউটিউব চ্যানেলে। প্রতিবারই বিপিএলে প্রোডাকশনের মান নিয়ে ওঠে প্রশ্ন। নিম্নমানের প্রোডাকশন নিয়ে হয় তুমুল সমালোচনা। এবার টুর্নামেন্ট আকর্ষণীয় করতে সব ব্যবস্থাই নেওয়া হচ্ছে বলে জানালেন নিজামউদ্দিন, ‘আমরা প্রোডাকশনের ব্যাপারে যথেষ্ট গুরুত্ব দিচ্ছি। চেষ্টা করি প্রযুক্তির দিক দিয়ে যতটা ভালো করার। ড্রোন, স্পাইডার ক্যাম এবারও ব্যবহার করব। বাইরের ভেন্যুগুলোয় (চট্টগ্রাম-সিলেট) ড্রোন ব্যবহার করব।’

আইপিএল, বিগব্যাশ, সিপিএল কিংবা পিএসএলে ধারাভাষ্যকক্ষও থাকে তারায় পূর্ণ। বিপিএল এখানেও পিছিয়ে। গতবার এমন ধারাভাষ্যকর আনা হলো, যিনি বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটারদের নাম এমনকি দলগুলোর নামও সঠিকভাবে উচ্চারণ করতে পারেননি। এবার বিদেশিদের মধ্যে বিপিএলে ধারাভাষ্য দেবেন ভারতের নারী ক্রিকেটার আনজুম চোপড়া, আয়ারল্যান্ডের সাবেক ক্রিকেটার নেইল ও’ব্রায়েন, জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটার ভুসি সিবান্দা। বাংলাদেশ থেকে থাকবেন আতহার আলী খান ও শামীম চৌধুরী।

বিসিবির প্রধান নির্বাহী বলছেন, গতবারের ভুলের পুনরাবৃত্তি তাঁরা করতে চান না, ‘অবশ্যই চেষ্টা করব গতবারের ভুলগুলো যেন না হয়। আপনারা (সংবাদমাধ্যম) যেসব প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিলেন সেগুলোর ভিত্তিতে এবার সংশোধন করার চেষ্টা করব।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন