default-image

বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল একে একে বসছে প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে। সেটির অংশ হিসেবে আজ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের সঙ্গে বসেছিল তারা। বৈঠক শেষে কুমিল্লার স্বত্বাধিকারী নাফিসা কামাল সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, তাঁরা আগের নিয়মেই থাকতে চান।

বিপিএলের সব ফ্র্যাঞ্চাইজির চুক্তি শেষ। এ বছর থেকে নতুন করে চুক্তি হবে সবার। নতুন চুক্তিতে যাওয়ার আগে বিসিবি চাইছে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর সঙ্গে আলোচনা শেষে কিছু নিয়ম সংশোধন করতে। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা চাইছে আগের নিয়মই বজায় থাকবে সামনের বিপিএলেও। কুমিল্লার স্বত্বাধিকারী নাফিসা কামালের যুক্তি, ‘যদি বিপিএলের ইতিহাসে গত টুর্নামেন্টকে সবচে সফল বলা হয় তাহলে কেন সেই মডেলটি বদলাতে যাব? আমরা ওই মডেলটিই কেন চালিয়ে যাব না? আমাদের বোর্ড সভাপতি বলেছেন বিপিএলে কোন নিয়ম পরিবর্তন হয়নি, হয় না। আমরা তাঁর কথা সম্মান জানাই। আমরা সফল মডেলের ধারাবাহিকতা ধরে রাখার পক্ষে।’

বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল জানিয়েছে, চুক্তি নবায়ন না হওয়া পর্যন্ত কোনো খেলোয়াড়কে দলে নেওয়া যাবে না। নিলে সেটির বৈধতা থাকবে না। এ কারণে সাকিব আল হাসানের সঙ্গে রংপুর রাইডার্সের যে চুক্তি হয়েছে, সেটি নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। শুধু রংপুর নয়, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে মুশফিকুর রহিমের। তামিম ইকবালকে নিয়েছে খুলনা। সে হিসেবে কুমিল্লার সঙ্গে মুশফিকের চুক্তির বৈধতা নিয়েও প্রশ্ন ওঠে। এ নিয়ে নাফিসা বললেন, ‘মুশফিকের সঙ্গে আমরা চুক্তি করেছি বিশ্বকাপের মাঝে। তামিম তার আগে গেছে (খুলনায়)। এখন এসব সাজেশন আসছে একটি ইস্যুতে (সাকিবের বিষয়টি ইঙ্গিত করে)। সেটির জন্য আলাদা সমাধান বের করা উচিত। পুরো কাঠামো বদলানোর প্রয়োজন আছে বলে মনে করি না।’

তবে কুমিল্লা অন্য ফ্র্যাঞ্চাইজির সঙ্গে একটি বিষয়ে একমত—তারাও চায় লাভের ভাগ। নাফিসা বললেন, ‘সাত বছর আমরা বিপিএলে অংশ নিচ্ছি। আমরা পুরোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি। এখনো পর্যন্ত লাভেই আসতে পারিনি। কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি পারেনি। এটা আমাদের সবার জন্য লস প্রজেক্ট। চিন্তা করছি আগামী বছর বিপিএলে থাকব কি না। এ অবস্থায় শুধু লাভবান হচ্ছে বিসিবি। অবশ্যই আমরা তার অংশ হতে চাইব। আমরা অনেক বড় একটি অংশীদার। এখনো একতরফা টুর্নামেন্ট হচ্ছে। আমরা কিছুই পাচ্ছি না শুধু দিয়েই যাচ্ছি।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0