বিজ্ঞাপন
default-image

করোনার কারণে এবারের বিশ্বকাপ মরুর দুই দেশে হলেও মূল আয়োজক হিসেবে থাকছে ভারত। নানা ঘটনার পর বিসিসিআই ও আইসিসি শেষ পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত উপনীত হয়। গ্রুপ ঘোষণা করার মাধ্যমে বিশ্বকাপ মাঠে গড়ানোর পথে পা রাখল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড।

বিসিসিআই সেক্রেটারি জয় শাহ যেন সে জন্যই স্বস্তির নিশ্বাস ফেলছেন, ‘গ্রুপ ঘোষণার মাধ্যমে বিশ্বকাপের দিন গণনা শুরু হয়ে গেল। দুটি গ্রুপকে আলাদা করা খুবই কঠিন। ছোট সংস্করণে প্রতিটি দলই দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ। তবে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট চমকের জন্য পরিচিত। সবাইকেই সে জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। আমি নিশ্চিত বেশ কিছু রোমাঞ্চকর ম্যাচ দেখতে পাব।’

করোনা মহামারিতে অক্টোবর-নভেম্বরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপই হতে যাচ্ছে আইসিসির প্রথম বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট। আইসিসির ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী জিওফ অ্যালারডাইস এ ব্যাপারে বলেছেন, ‘আমরা বিশ্বকাপের কোন গ্রুপে কে আছে, এই ঘোষণা করতে পেরে খুশি। প্রতিটি গ্রুপে দারুণ কিছু প্রতিযোগিতা দেখা যাবে। আশা করি, বিশ্বকাপের এই প্রতিদ্বন্দ্বিতা আমাদের ভক্তদের মধ্যে উন্মাদনা জোগাবে। মহামারির মধ্যে এটিই হতে যাচ্ছে আমাদের প্রথম বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট।’

এবারের বিশ্বকাপ দিয়ে আয়োজক হিসেবে ওমান দৃশ্যপটে আসতে যাচ্ছে। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান সৌরভ গাঙ্গুলী মনে করেন, এতে ওমান ও আশপাশের দেশে ক্রিকেটের জনপ্রিয়তা বাড়বে। তিনি বলেছেন, ‘ওমানের বিশ্ব ক্রিকেটে উঠে আসা ভালো খবর। এতে তরুণ ক্রিকেটারদের খেলার প্রতি আগ্রহ বাড়বে।’

করোনা মহামারিতে অক্টোবর-নভেম্বরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপই হতে যাচ্ছে আইসিসির প্রথম বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট। আইসিসির ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী জিওফ অ্যালারডাইস এ ব্যাপারে বলেছেন, ‘আমরা বিশ্বকাপের কোন গ্রুপে কে আছে, এই ঘোষণা করতে পেরে খুশি। প্রতিটি গ্রুপে দারুণ কিছু প্রতিযোগিতা দেখা যাবে। আশা করি, বিশ্বকাপের এই প্রতিদ্বন্দ্বিতা আমাদের ভক্তদের মধ্যে উন্মাদনা জোগাবে। মহামারির মধ্যে এটিই হতে যাচ্ছে আমাদের প্রথম বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন