বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

১ অক্টোবর বিশ্বকাপের আগে স্পনসর ভিডিও সেশন আছে জাতীয় দলের, ফলে ওই দিনই শুরু হবে বিশ্বকাপ দলের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম। ২ অক্টোবর হবে করোনাভাইরাস পরীক্ষা, সে দিন নিজ বাসায় ‘কঠোর কোয়ারেন্টিন’-এ থাকতে হবে সবাইকে।

default-image

বিশ্বকাপে প্রথম রাউন্ডে বাংলাদেশের তিনটি ম্যাচই ওমানে। ৩ অক্টোবর রাতে ঢাকা থেকে মাসকাটে যাবে বাংলাদেশ। ৪ তারিখ সেখানে পৌঁছে থাকতে হবে এক দিনের রুম কোয়ারেন্টিনে। এরপর চার দিন সেখানে অনুশীলন করে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে সংযুক্ত আরব আমিরাত যাবে বাংলাদেশ। ১০ অক্টোবর সেখানেও এক দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে তাদের।

বিশ্বকাপ শুরুর আগে বাংলাদেশ প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে। আবুধাবিতে ১২ অক্টোবর লঙ্কানদের বিপক্ষে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচ, আইরিশদের বিপক্ষে ম্যাচটি ১৪ অক্টোবর। দুটি ম্যাচই শুরু হবে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ছয়টায়।

প্রস্তুতি ম্যাচের পর ১৫ অক্টোবর আবার ওমান যাবে বাংলাদেশ। ১৭ অক্টোবর বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে। ওমানের বিপক্ষে মাহমুদউল্লাহর দলের ম্যাচ ১৯ অক্টোবর, এরপর ২১ অক্টোবর পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে প্রথম পর্বে শেষ ম্যাচ তাদের। সব কটি ম্যাচই বাংলাদেশ সময় রাত অটটায়।

default-image

বিসিবির দেওয়া সূচি অনুযায়ী, প্রথম পর্ব শেষে ২২ অক্টোবর আবারও সংযুক্ত আরব আমিরাতে যাবে বাংলাদেশ। ২৩ অক্টোবর আবারও এক দিনের রুম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে তাদের। এরপর ২৪ অক্টোবর থেকে অনুশীলন। যদিও শেষের এ অংশটুকু নির্ভর করছে বাংলাদেশের সুপার টুয়েলভে যাওয়ার ওপর।

সুপার টুয়েলভে গেলে বাংলাদেশ যাবে ‘বি১’ দল হিসেবেই। সে হিসেবে বাংলাদেশ পড়বে ২ নম্বর গ্রুপে। সে ক্ষেত্রে সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ ২৫ অক্টোবর শারজাহে, আফগানিস্তানের বিপক্ষে।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দল: মাহমুদউল্লাহ (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মোস্তাফিজুর রহমান, লিটন দাস, সৌম্য সরকার, নুরুল হাসান, আফিফ হোসেন, মোহাম্মদ নাঈম, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, নাসুম আহমেদ, মেহেদী হাসান, শামীম হোসেন, তাসকিন আহমেদ, শরীফুল ইসলাম।

স্ট্যান্ডবাই: রুবেল হোসেন, আমিনুল ইসলাম।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন