বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

গত শনিবার রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে ম্যাচের পর কোমরের ওপরের অংশে ব্যথা অনুভূত হয় কারেনের। এরপরই স্ক্যান করানো হয় তাঁর। সেখানে চোট ধরা পড়ার পর ইসিবি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইসিবি জানিয়েছে, আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই যুক্তরাজ্য উড়ে যাবেন কারেন। ফলে আইপিএলের বাকি অংশেও খেলা হবে না তাঁর। যুক্তরাজ্যে কারেনের আবারও স্ক্যান করানো হবে। এ সপ্তাহের শেষে কারেনের চোট নিয়ে আবারও পর্যালোচনায় বসবে ইসিবির মেডিকেল বোর্ড।

বিশ্বকাপ শুরুর আগে কারেনের চোট ইংল্যান্ডের জন্য এল আরেকটি ধাক্কা হয়ে। চোটের কারণে এ বছর আর খেলতে পারবেন না ফাস্ট বোলার জফরা আর্চার। মানসিক অবসাদজনিত কারণে ক্রিকেট থেকেই অনির্দিষ্টকালের বিরতি নিয়েছেন বেন স্টোকস। এ দুজনকে ছাড়াই বিশ্বকাপ দল ঘোষণা করেছিল ইংল্যান্ড।

২০১৯ সালের নভেম্বরে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে অভিষিক্ত কারেন এখন পর্যন্ত এ সংস্করণে খেলেছেন ১৬টি ম্যাচ। পেসের বৈচিত্র্যে কার্যকর বোলিংয়ের সঙ্গে নিচের দিকে তাঁর ঝোড়োগতির ব্যাটিংটাও সহায়ক হতো ইংল্যান্ডের জন্য।

default-image

স্কোয়াডে টম কারেন ছাড়াও রিজার্ভ হিসেবে ছিলেন লিয়াম ডসন ও জেমস ভিন্স। তবে ডসন স্পিনার, ভিন্স ব্যাটসম্যান। স্যাম কারেনের বদলি হিসেবে টম কারেনকে দলে ডেকে ইংল্যান্ড ইঙ্গিত দিল, নিজেদের শক্তিমত্তার ওপরই নির্ভর করছে তারা এখনো।

সংযুক্ত আরব আমিরাতে বিশ্বকাপ শুরুর আগেই হচ্ছে আইপিএল। ফলে ক্লান্ত উইকেটে স্পিনারদের সহায়তা পাওয়ার সম্ভাবনা থাকলেও ইংল্যান্ড তাদের স্কোয়াড গড়েছে পেস-নির্ভরই—এ বিশ্বকাপে তাদের দলে স্বীকৃতি পেসারই আছেন ছয়জন।

default-image

ইংল্যান্ড দলের যেসব সদস্য আইপিএলে নেই, তাঁরা আজই মাসকাটে বিশ্বকাপ ক্যাম্পে পৌঁছে গেছেন। ১৬ অক্টোবর পর্যন্ত ওমানেই থাকবেন তাঁরা। এরপর দুবাইয়ে যাবে এউইন মরগানের দল। ২৩ অক্টোবর বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এবারের আসর শুরু করবে গতবারের রানার্সআপ ইংল্যান্ড।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড স্কোয়াড

এউইন মরগান (অধিনায়ক), মঈন আলী, জনি বেয়ারস্টো, স্যাম বিলিংস, জস বাটলার, টম কারেন, ক্রিস জর্ডান, লিয়াম লিভিংস্টোন, ডেভিড ম্যালান, টাইমাল মিলস, আদিল রশিদ, জেসন রয়, ডেভিড উইলি, ক্রিস ওকস ও মার্ক উড।

রিজার্ভ

লিয়াম ডসন, জেমস ভিন্স, রিস টপলি।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন