বিসিবিকে ধন্য দিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
বিসিবিকে ধন্য দিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।ফাইল ছবি: প্রথম আলো

বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ সফলভাবে আয়োজন করায় বিসিবিকে ধন্যবাদ জানিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড। করোনাকালে বাংলাদেশের একের পর এক সিরিজ স্থগিত হওয়ার পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ রাজি হয় বাংলাদেশে আসতে। দুই দল তিনটি ওয়ানডে সুপার লিগের ম্যাচ ও দুটি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচ খেলে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ আসায় ঘরের মাঠে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের খরা কাটে বাংলাদেশেরও।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জনি গ্রেভ বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিনকে পাঠানো চিঠিতে লিখেছেন, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের পক্ষ থেকে বিসিবিকে সিরিজটি সফল ও নিরাপদভাবে আয়োজনের জন্য ধন্যবাদ জানাই। বিসিবির সঙ্গে কাজ করে খুবই আনন্দ পেয়েছি। মেডিকেল, লজিস্টিকসহ জৈব সুরক্ষাবলয়ের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আমাদের ক্রিকেটার ও সাপোর্ট স্টাফরা বিসিবির ভালো প্রশংসা করেছে। আশা করি, এই সিরিজ অন্যান্য আন্তর্জাতিক দলগুলোকেও বাংলাদেশে যেতে উৎসাহী করবে।’

বিজ্ঞাপন
default-image

এ সিরিজে দুই দেশের সম্পর্ক আরও ভালো করেছে বলেই ধারণা জনি গ্রেভের। চিঠিতে এ সম্পর্কের ইতিবাচক ফল বাস্তবায়নের ইঙ্গিতও দিয়েছেন, ‘বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে আমাদের ধন্যবাদ জানাই এবং আমরা নিকট ভবিষ্যতে বাংলাদেশকে আমাদের ঘরের মাঠে দেখতে চাইব।’ ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজটি সফলভাবে আয়োজনের জন্য বিসিবির বিভিন্ন বিভাগকে ধন্যবাদ দিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী। আজ ওয়েস্ট ইন্ডিজের পাঠানো চিঠির ব্যাপারে বলেছেন, ‘এটা আমাদের জন্য খুবই তৃপ্তির। এর জন্য বিসিবির সব বিভাগের ধন্যবাদ প্রাপ্য। বিশেষ করে ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগ, গ্রাউন্ডস ও মেডিকেল বিভাগ খুব ভালো কাজ করেছে।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজ বাংলাদেশে আসায় ভবিষ্যৎ নিয়ে আশাবাদী হয়ে উঠছে বিসিবি। করোনার এ সময়টায় অনেক দেশই ঘরের মাঠে সিরিজ আয়োজন করতে পারছে না। দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দেশ জৈব সুরক্ষাবলয় নিয়ে সন্তুষ্ট করতে পারেনি ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়াকে। ফলে গুরুত্বপূর্ণ দুটি সিরিজ অনির্দিষ্টকালের জন্য পিছিয়ে গেছে দক্ষিণ আফ্রিকার। এমন পরিস্থিতিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রশংসা বিসিবির ভাবমূর্তি অন্য দেশগুলোর কাছে উজ্জ্বল করে তুলবে বলে আশা প্রধান নির্বাহীর, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের এই প্রশংসাবার্তা অন্য দলগুলোকেও বাংলাদেশে আসতে আগ্রহী করবে।’

ঘরের মাঠে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আয়োজনের জন্য ছোট ছোট পদক্ষেপ নেয় বিসিবি। প্রথমে তিন দলের ওয়ানডে টুর্নামেন্ট বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপ আয়োজন করা হয়। এরপর পাঁচ দলের বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট সফলভাবে আয়োজনের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আয়োজনের আত্মবিশ্বাস পায় বিসিবি।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন