বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশের পেসারদের মধ্যে আল আমিন কিছুটা ব্যতিক্রম এখানেই, কখনো চোটের কারণে দল থেকে বাদ পড়েননি। বাদ পড়েছেন শুধুই শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে। পেছনের দুঃসময় ফেলে আল আমিন আবার চেষ্টা করছেন বাংলাদেশ দলে থিতু হতে। সেই চেষ্টার অংশ হিসেবে কোরবানির ঈদের পর যোগ দিয়েছেন মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে ব্যক্তিগত অনুশীলনে। গত এক মাসের অনুশীলনে স্পট বোলিং করেছেন, সেটি শুধু খালি স্টাম্পে। সামনে ব্যাটসম্যান না থাকলে অবশ্য বোলিংয়ের ভালো-মন্দ বোঝা কঠিনই।

আল আমিন খুশি, এ সপ্তাহ থেকে ব্যাটসম্যানদের বোলিং করতে পারছেন, ‘এই সপ্তাহে আমরা ব্যাটসম্যানদের বোলিং করতে পারছি। একটু স্বস্তি লাগছে নিজেদের কাছে। এত দিন আমরা ব্যাটসম্যানদের বোলিং করতে পারিনি। অনলাইনে কোচদের মিটিং বা যেভাবে দিক নির্দেশনা দিচ্ছিল সেভাবে চলছিলাম। কিন্তু এখন মাঠে অনুশীলনটা পুরোদমে শুরু হয়েছে। সামনের সপ্তাহে হয়তো আরও ভালোভাবে শুরু হবে। সব মিলিয়ে সামনে যে শ্রীলঙ্কা সিরিজ আসছে সেটি সামনে রেখে ভালো প্রস্তুতি হচ্ছে।’

আগামী সপ্তাহে ঢাকায় ফিরছেন বাংলাদেশ দলের কোচিং স্টাফের সদস্যরা। কোচরা এসেই অবশ্য মাঠে নামতে পারবেন না। কিছুদিন থাকতে হবে সঙ্গনিরোধ বা কোয়ারেন্টিনে। ৭ টেস্ট, ১৫ ওয়ানডে ও ৩১ টি-টোয়েন্টি খেলা আল আমিন আশাবাদী, কোচিং স্টাফ যখনই কাজ শুরু করবেন, প্রস্তুতিটা আরও ভালো হবে তাঁদের, ‘আগামী সপ্তাহে আমাদের কোচিং স্টাফ যারা আছে, চলে আসবে। আশা করছি আরও ভালো অনুশীলন সুযোগ-সুবিধা পাব। আরও ভালোভাবে নিজেদের প্রস্তুত করতে পারব।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন