বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

প্রথম ম্যাচে ৫ বলে মাত্র ৩ রান করেছিলেন সাকিব। দ্বিতীয় ম্যাচে ৯ বলে ৯ রান করেছিলেন। সবচেয়ে বড় ব্যাপার, তাঁর আউট হওয়াই এক ব্যাটিং ধসের জন্ম দিয়েছিল, যা হার নিশ্চিত করেছিল মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের বিপক্ষে। সে দুই ম্যাচে তবু বল হাতে কিছু করেছিলেন সাকিব।

আজ সাকিব বল হাতেও কিছু করতে পারেননি। ২ ওভারে ২৪ রান দেওয়ার পর আর বোলিং পাননি। যখন ব্যাটিংয়ে নেমেছেন, তখন কিছু করে দেখানোর সুযোগ ছিল। দুই শ ছাড়ানো লক্ষ্যে ৮.৩ ওভারে কলকাতার রান তখন ৭৮।

একদিকে মরগান, অন্যদিকে সাকিব। কিন্তু এ দুজনের জুটিই ম্যাচ থেকে উল্টো যেন ছিটকে দিয়েছে কলকাতাকে। ৩১ বলে ৪০ রানের জুটি এমন এক ম্যাচে দলের কোনো কাজে আসেনি।

মরগানের ২৩ বলে ২৯ রানের ইনিংস শেষ হওয়ার পর সাকিবের দায়িত্ব ছিল রাসেলকে সঙ্গ দেওয়া। ৪ ওভারের জুটিতে ৪১ রান ওঠার পর সাকিব ফিরে গেছেন ১৮তম ওভারে। রাসেলকে সঙ্গ দেওয়া এই জুটিতে সাকিবের অবদান ১১ বলে ১০ রান। এক চার ও এক ছক্কায় ২৫ বলে ২৬ রান করে ফিরেছেন সাকিব। আন্দ্রে রাসেলও ২০ বলে ৩১ রান করে হার মেনেছেন।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন