default-image

বিশ্বজুড়ে ক্রিকেটে যেখানে মরুভূমির খরতাপ, একপশলা বৃষ্টি হয়ে যেন এসেছে সাউদাম্পটন টেস্ট। করোনাভাইরাস এসে বিশ্বজুড়ে সবকিছুই তো থামিয়ে দিয়েছে, ক্রিকেট আর সেখানে এমন কী! সেই মার্চ থেকেই ক্রিকেট ঘরবন্দী। ক্রিকেটাররাও। ব্যাট-হেলমেট-প্যাড-বলগুলো হাতে নেওয়া বলতে ধুলো-ময়লা ঝেড়ে রেখে দেওয়া পর্যন্তই।


ক্রিকেট না দেখে থাকতে ক্রিকেটভক্ত মানুষেরই হাঁসফাঁস লাগছিল এত দিন, তাহলে ক্রিকেট যাদের জীবন-ধ্যানজ্ঞান, তাঁদের কেমন লাগবে? লোকেশ রাহুলের ইনস্টাগ্রাম পোস্ট কিছুটা বুঝিয়ে দেবে সেটা।

ইনস্টাগ্রামে আজ একটা ছবি পোস্ট করেছেন রাহুল। তাঁর ব্যাট-প্যাড-গ্লাভস-কিটব্যাগ মেঝেতে পড়ে আছে। সেগুলোর পাশে হাঁটু গেঁড়ে বসে থাকা রাহুলের হাতে ভারতের প্রতীকসংবলিত হেলমেট। ছবির ক্যাপশনে ২৮ বছর বয়সী ভারতীয় ব্যাটসম্যান লিখেছেন, ‘আই মিস ইউ!’ ছবির অ্যালবাম হাতড়ে পুরোনো স্মৃতিতে রঙিন দিনে ফিরে যাওয়ার অনুভূতি যেমন, ছবিটা যেন তেমনই সুর তুলে যায়। এখন পর্যন্ত প্রায় ৪ লাখ ২৫ হাজার ‘লাইক’ কামানো পোস্টে ভক্তদের মন্তব্যগুলোতে স্পষ্ট, ক্রিকেটের অভাব তারাও কম বোধ করছেন না!

করোনার বিরতি কাটিয়ে অনেক নিরাপত্তার কড়াকড়িতে, জৈব-সুরক্ষিত পরিবেশে হয়ে গেল সাউদাম্পটন টেস্ট। যেটিকে কল্পবিজ্ঞানের টেস্টও বলেছেন কেউ কেউ। দারুণ রোমাঞ্চ ছড়ানো টেস্টটিতে কাল ইংল্যান্ডকে ৪ উইকেটে হারিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। টিভিতে ক্রিকেট দেখতে পাওয়ার অপেক্ষা এই টেস্ট দিয়ে ফুরিয়েছে। কিন্তু ক্রিকেট আবার সেই পুরোনো ঢংয়ে ফিরে যাওয়া তো করোনা নামের এই অন্ধকারের কেটে যাওয়ার ওপর নির্ভরশীল।

ভারতে ক্রিকেট ফেরাও এখনো খুব শিগগিরই হবে বলে মনে হচ্ছে না। এখন পর্যন্ত ভারতে ৮ লাখ ৮২ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত, আক্রান্তের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের পর বিশ্বে তৃতীয় ভারত। মারা গেছেন ২৩ হাজারেরও বেশি মানুষ। প্রতিদিনও আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছেই। ভারতের কিছু কিছু অংশে ক্রিকেটাররা অনুশীলনে ফিরলেও দিল্লি-মুম্বাইয়ের মতো শহরগুলোতে বাস করা ভারতের ক্রিকেটাররা এখনো তাই নিশ্চিত নন, কবে ঘর থেকে বেরিয়ে অনুশীলনে নামতে পারবেন।

রাহুলদের তাই দিন কাটছে অপেক্ষায়। আর ব্যাট-প্যাডের ধুলো ঝেড়ে।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন