বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মুমিনুলের কথাটিই একটু ঘুরিয়ে বলেছেন বিখ্যাত ক্রিকেট ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলে। তিনি কাল টুইটারে লিখেছেন, নিউজিল্যান্ড সফরের পর বাংলাদেশের কাজ কতটা কঠিন হয়ে যাবে, সেটি নিয়ে। তাঁর মতে, ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট প্রমাণ করে দিয়েছে মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে বাংলাদেশের জয় কতটা অভাবনীয় ছিল। তিনি লিখেছেন, ‘ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার শক্তির পার্থক্যে এটাই বোঝা যায় যে আগের টেস্টের ফল কতটা নাটকীয় ছিল। বাংলাদেশের উচিত হবে, এই অর্জনের ওপর দাঁড়িয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়া, যদিও সেটি খুব সহজ হবে না। শ্রীলঙ্কা যেটি ২০১৯ সালের দক্ষিণ আফ্রিকায় দুর্দান্ত এক সফরের পর থেকে বুঝতে পারছে।’

২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ধবলধোলাই করেছিল শ্রীলঙ্কা। কিংসমিড আর সেন্ট জর্জেস পার্কে সেই দুই জয়ের পর বিদেশের মাটিতে টেস্ট জেতাটা কঠিনই মনে হয়েছে শ্রীলঙ্কার কাছে। এমনকি জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হারারে টেস্টেও জিততে পারেনি তারা। ভোগলে মনে করেন, নিউজিল্যান্ড সফরের পর ঠিক এই জায়গায় নিজেদের আবিষ্কার করবে বাংলাদেশ।

default-image

ভবিষ্যৎটা কঠিন হবে, এটা মেনে নিয়েই অনেক ইতিবাচক জিনিসও খুঁজে পাচ্ছেন মুমিনুল। সেটি হচ্ছে আত্মবিশ্বাস। বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা যে পারেন, নিজেদের ক্ষমতার সর্বোচ্চ প্রয়োগ ঘটাতে পারলে যে ইতিহাস গড়তে পারেন, এই বিশ্বাস নিয়েই নিউজিল্যান্ড থেকে ফিরছে বাংলাদেশ। মুমিনুল নিজেও তৃপ্তি খুঁজতে পারেন দেশকে একটা বড় টেস্ট জয় উপহার দেওয়ার নেতৃত্ব দিতে পেরে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন