ভাগ্য বদলের দিন আজ?

বিজ্ঞাপন
default-image

লিডস টেস্টে পরিষ্কার ফেবারিট হিসেবে নামছে ইংল্যান্ড। সিরিজে ১-০ পিছিয়ে থাকার পরও এখনই সিরিজ জেতার ব্যাপারে হুংকারও ছুড়তে পারছেন জো রুট। কারণ, ফেবারিট হিসেবে অ্যাশেজ শুরু করা ইংল্যান্ডকে দুই টেস্টে দমিয়ে রাখা স্টিভ স্মিথই যে নেই লিডসে। কনকাশনের কারণে লর্ডসে দ্বিতীয় ইনিংস খেলতে না পারা স্মিথের অভাব অস্ট্রেলিয়া পূরণ করতে পারবে না বলেই ধারণা ইংলিশ অধিনায়কের।

অ্যাশেজের প্রথম তিন ইনিংসে ৩৭৮ রান করা স্মিথ লর্ডসে জফরা আর্চারের এক বাউন্সারে বাঁ কানের নিচে আঘাত পেয়েছিলেন। সে আঘাতের দায় এখনো মেটাচ্ছেন স্মিথ। কোনো ঝুঁকি নিতে রাজি না হওয়ায় আজ স্মিথকে খেলাচ্ছে না অস্ট্রেলিয়া। সিরিজ জুড়ে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং লাইনআপের ধস সামলেছেন স্মিথ। তাঁর অনুপস্থিতিতে তাই বড় সুযোগ দেখতে পাচ্ছেন রুট, ‘অনেক বড় শূন্যস্থান পূরণ করতে হবে। বড় সিরিজে প্রায় এমন মুহূর্ত আছে যাতে সিরিজের গতি প্রকৃতি বদলে যায়। আর যখন এমন সুযোগ আসে তখন সেটা নিতে হয়। এটা আসলেই দারুণ, কীভাবে সবকিছু বদলে যেতে পারে। এজবাস্টন টেস্ট শেষে মনে হচ্ছিল সব শেষ হয়ে গেছে। আর এখন এ টেস্টের আগে দেখুন! যদিও স্কোরলাইন বলছে ১-০, কিন্তু তেমনটা মনেই হচ্ছে না।’

স্মিথ শুধু রানই করছেন তা নয়, প্রায় প্রতি ইনিংসে লেট অর্ডার নিয়ে প্রতিরোধ গড়েছেন। তাঁর উপস্থিতিতে প্যাট কামিন্স কিংবা নাথান লায়নরা সাহসী হয়ে উঠছেন। উইকেটে পার করছেন দীর্ঘ সময়। অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস এখন তাই স্মিথময়। স্মিথের মতো একজনের অনুপস্থিতি তাই প্রতিপক্ষের অধিনায়কের জন্য স্বস্তিদায়ক। তবে যেভাবে বাদ পড়েছেন স্মিথ সেটা কখনোই কাম্য নয় রুটের কাছে, ‘এটা অনেক বড় সিরিজ এবং সব খেলোয়াড়ের কাছে এটা (জেতা) খুব গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু এর মানে এটা নয় যে কেউ গুরুতর আহত হয়ে বাদ পড়ুক কিংবা বাকি জীবনের জন্য ক্ষতিগ্রস্ত হোক সেটা আমরা চাইব। ওর স্বার্থ নিয়ে আমাদের ড্রেসিংরুমেও অনেক দুশ্চিন্তা হয়েছে।’

রুট অবশ্য দাবি করছেন স্মিথের অনুপস্থিতিতে অস্ট্রেলিয়া যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, ইংল্যান্ডকেও তেমন সমস্যা কাটিয়ে উঠতে হয়েছে. ‘ওদের জন্য দুর্ভাগ্যজনক যে স্মিথ নেই। কিন্তু আমাদেরও জিমি অ্যান্ডারসন ছাড়া খেলতে হয়েছে। প্রথম টেস্টে মাত্র চার ওভারের পর ওকে হারিয়েছি আমরা, কোনো বদলিও তো পাইনি।’

স্মিথের অনুপস্থিতিতে আজ মারনাস লেবুশেনের নামার কথা। লর্ডসে স্মিথের কনকাশন বদলি হিসেবে নেমে স্মিথের মতোই ব্যাটিং বিপর্যয় কাটানোয় ভূমিকা রেখেছিলেন এই অলরাউন্ডার। লিডসেও তাঁর কাছে এমন কিছু আশা করবে অস্ট্রেলিয়া।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন