বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

আর এটিকেই ক্রিকেট–সম্প্রীতির অনন্য উদাহরণ বলছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ব্যাটসম্যান ম্যাথু হেইডেন। হেইডেন বর্তমানে পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি দলের ব্যাটিং পরামর্শক।

এমন দৃশ্য দেখে হেইডেন রীতিমতো মুগ্ধ, ‘ক্রিকেটারদের মাঠের পারফরম্যান্সের বাইরে যে বিষয় আমাকে বেশি অনুপ্রাণিত করেছে, সেটা হলো তাদের অসাধারণ ক্রীড়া–সম্প্রীতি।’

default-image

বিরাট কোহলি ছাড়া ভারতীয় দলের পরামর্শক মহেন্দ্র সিং ধোনিকেও সেদিন পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম, শোয়েব মালিক ও শাহনেওয়াজ দাহানির সঙ্গে আড্ডায় মেতে উঠতে দেখা গেছে মাঠে।

২০০৮ সালে মুম্বাইয়ে সন্ত্রাসী হামলায় শত শত মানুষ মারা যাওয়ার পর আর ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে কোনো দ্বিপক্ষীয় ক্রিকেট সিরিজ হয়নি। হেইডেন তাই পাকিস্তান ও ভারতের খেলোয়াড়দের মাঠের এমন আচরণকে ভালো একটি উদাহরণ হিসেবেই দেখছেন, ‘মানুষ হিসেবে একে অন্যের সঙ্গে কেমন আচরণ করা উচিত, সেটা ওরা করে দেখিয়েছে। এটাই খেলাধুলার আসল কাজ। যখন ধোনি মাঠে কয়েকজন পাকিস্তানি খেলোয়াড়ের সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছে এবং বিরাট কোহলি রিজওয়ানকে অভিনন্দন জানাচ্ছে, তখন এই দৃশ্যগুলো দেখতেও দারুণ লাগে। কেননা একটু আগেই তারা মাঠের লড়াইয়ে ব্যস্ত ছিল, পরে সেই খেলোয়াড়েরাই হাতে হাত রেখে আড্ডা দিয়েছে।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন