বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নাম প্রকাশ না করে বিসিসিআইয়ের সাবেক ওই কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে ভারতের সংবাদ সংস্থা আইএএনএস লিখেছে, ‘বিরাটের কাছ থেকে আসা এই ঘোষণা কেমন বলুন তো? আপনারা কেউ কি এটা বুঝতে পারছেন? দায়িত্বের ভার ও চাপের সমস্যার কি সমাধান হয়ে গেছে?’

আন্তর্জাতিক টি–টোয়েন্টি আর আইপিএলে খেলার চাপের পরিমাণ বোঝাতে গিয়ে ওই কর্মকর্তা বলেছেন, ‘আমি কোথাও পড়েছি যে মহামারি শুরু হওয়ার পর ২০২০ সালের ডিসেম্বর থেকে ভারত মাত্র ৮টি টি–টোয়েন্টি খেলেছে। আইপিএলে নিশ্চয়ই এর চেয়ে অনেক বেশি ম্যাচ খেলেছে সে।’

এরপর আন্তর্জাতিক ম্যাচ আর আইপিএলে অধিনায়কত্ব করার চাপ নিয়ে তিনি বলেন, ‘আইপিএলে অধিনায়কত্ব করাটা অত সহজ নয়। প্রতিটি টুর্নামেন্টে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার দিকে তাকালেই সেটা স্পষ্ট হয়। ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর জয়ের চাহিদা ব্যাখ্যা করে বোঝানো যাবে না।’

default-image

ওই কর্মকর্তা তাঁর বক্তব্য শেষ করেছেন এই সব কথার সারমর্ম দিয়ে, ‘তা কোহলি এখন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়াবে? ভারতের টি–টোয়েন্টির অধিনায়কত্ব ছাড়লেও কিন্তু সে তিন সংস্করণেই (টেস্ট, ওয়ানডে আর বেঙ্গালুরুর হয়ে আইপিএলে) নেতৃত্ব দিয়ে যাবে।’ এরপর তিনি আবার সেই দায়িত্বের ভার আর চাপের বিষয়টি টেনে এনে বলেন, ‘তাহলে কী দাঁড়াল? দায়িত্বের ভার ও চাপের বিষয়ের তো কোনো সমাধান হলো না।’

এর আগে ভারতের জনপ্রিয় ক্রিকেট ধারাভাষ্যকার ও বিশেষজ্ঞ হার্শা ভোগলেও কোহলির নেতৃত্ব ছাড়া নিয়ে নিজের মতামত দিয়েছেন। টুইটারে ভোগলে গতকাল লিখেছেন, তাঁর ধারণা ছিল ‘বিরাট বেঙ্গালুরুর অধিনায়কত্বও ছেড়ে দেবে, যেটা তাকে নেতৃত্ব থেকে মাস দুয়েকের ছুটি দিত।’

default-image

সময়ের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান হলেও অধিনায়ক হিসেবে কোহলিকে অনেকে সেরাদের সারিতে রাখতে রাজি নন। তবে নেতৃত্ব ছাড়ার জন্য ভালো সময়ই বেছে নিয়েছেন কোহলি। ভারত যদি টি–টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতে যায়, তাহলে অধিনায়ক কোহলির বিদায়টা হবে মাথা উঁচু করে। আর শিরোপা না জিতলে মানুষ যে তাঁকে নেতৃত্ব ছাড়ার কথা বলে তির ছুড়তে শুরু করত, সেটা আর হবে না!

বেঙ্গালুরুর অধিনায়ক হিসেবেও কোহলির রেকর্ড খুব একটা ভালো নয়। ২০১৩ সালে পুরো মাত্রায় দলটির অধিনায়কত্ব পাওয়ার পর একবারও শিরোপা জেতাতে পারেননি তিনি। তাঁর নেতৃত্বে একটিমাত্র ফাইনালই খেলেছে বেঙ্গালুরু। ২০১৬ সালের পর গত মৌসুমেই প্রথম প্লে–অফে খেলতে পারে দলটি। তবে শেষ দিকে টানা পাঁচ ম্যাচে হেরে যায় কোহলির বেঙ্গালুরু। সব মিলিয়ে অনেকেই মনে করছেন ভবিষ্যতে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর অধিনায়কত্বও ছাড়বেন কোহলি!

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন