বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

‘আইসিসির ছেলেদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ডের জন্য শ্রীলঙ্কা জাতীয় দলের পরামর্শক হিসেবে সাবেক শ্রীলঙ্কা অধিনায়ক মাহেলা জয়াবর্ধনেকে নিয়োগ দেওয়ার ঘোষণা সবাইকে জানাতে চায় শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট,’ কাল প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায় এসএলসি।

বিশ্বকাপের মূল পর্ব বা ‘সুপার টুয়েলভ’–এর আগে বাংলাদেশের মতো শ্রীলঙ্কাকেও প্রথম রাউন্ডে খেলতে হবে। ১৬ অক্টোবর থেকে ৭ দিন ধরে প্রথম রাউন্ডের ম্যাচ চলবে, দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলবে আটটি দল—বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, স্কটল্যান্ড, নামিবিয়া, ওমান ও পাপুয়া নিউগিনি।

এই আট দল থেকে চারটি যাবে সুপার টুয়েলভে, যেখানে আগে থেকেই জায়গা পাকা করে ফেলেছে বিশ্বকাপের বাছাইয়ের জন্য নির্ধারিত সময়ে র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকা আট দল। প্রথম রাউন্ডে শ্রীলঙ্কার গ্রুপ-সঙ্গী তিন দল—নামিবিয়া, আয়ারল্যান্ড ও নেদারল্যান্ডস। প্রথম রাউন্ডের ম্যাচগুলো হবে ওমান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে।

default-image

আপাতত প্রথম রাউন্ডের জন্যই শ্রীলঙ্কার পরামর্শক হচ্ছেন জয়াবর্ধনে। এ মুহূর্তে আইপিএলে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের কোচ ‘জয়া’ আইপিএল শেষে যোগ দেবেন শ্রীলঙ্কা দলের সঙ্গে। আইপিএলে জৈব সুরক্ষাবলয়ের ভেতরে থাকায় সেখান থেকে শ্রীলঙ্কা দলের জৈব সুরক্ষাবলয়ে ঢুকতে তাঁকে কোনো বাড়তি কোয়ারেন্টিন করতে হবে না।

শুধু বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার সিনিয়র দলের পরামর্শকই হচ্ছেন না, আগামী বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজে অনুষ্ঠেয় আইসিসির অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপকে সামনে রেখে শ্রীলঙ্কা অনূর্ধ্ব-১৯ দলেরও পরামর্শক হিসেবে কাজ করতে জয়াবর্ধনে রাজি হয়েছেন বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে এসএলসি। শ্রীলঙ্কার অনূর্ধ্ব-১৯ দলের পরামর্শক হিসেবে তাঁর চুক্তিটা হবে পাঁচ মাসের, সেখানে ‘জয়া’ কাজ করবেন অবৈতনিক চুক্তিতে।

‘মাহেলাকে নতুন এই দায়িত্বগুলোয় পেয়ে আমরা খুব খুশি। শ্রীলঙ্কা দল ও অনূর্ধ্ব-১৯ দলে তাঁর উপস্থিতি খেলোয়াড়দের অনেক কাজে আসবে। খেলোয়াড়ি জীবন থেকেই ক্রিকেট নিয়ে তাঁর অগাধ জ্ঞানকে মাঠে কাজে লাগাতে পারায় মাহেলার দক্ষতা সব সময় প্রশংসনীয় ছিল, প্রথমে খেলোয়াড় হিসেবে, তারপর অধিনায়ক হিসেবে, আর এখন বিভিন্ন দলের কোচ হিসেবে,’ বিবৃতিতে বলেছেন এসএলসির প্রধান নির্বাহী অ্যাশলি ডি সিলভা।

ব্যাট-প্যাড তুলে রাখার পর ২০১৫ সাল থেকেই বিভিন্ন ভূমিকায় কোচিংয়ের সঙ্গে জড়িয়ে আছেন জয়াবর্ধনে। ২০১৫ সালের আগস্টে ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে তাঁকে নিয়োগ দিয়েছিল ইংল্যান্ড।

২০১৭ আইপিএল থেকে কাজ করে যাচ্ছেন মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের প্রধান কোচ হিসেবে। তাঁর অধীনে ২০১৭, ২০১৯ ও ২০২০ আইপিএল জিতেছে রোহিত শর্মার মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। ২০১৭ সালের মে মাসেই বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ফ্র্যাঞ্চাইজি খুলনা টাইটানস দুই বছরের চুক্তিতে প্রধান কোচ হিসেবে নিয়োগ দেয় তাঁকে।

গত আগস্টে ইংল্যান্ডের ১০০ বলের টুর্নামেন্ট ‘দ্য হানড্রেড’-এ সাউদাম্পটন দলের কোচও ছিলেন জয়াবর্ধনে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন