default-image

বিরাট কোহলির সিদ্ধান্ত যেমন প্রশংসিত হচ্ছে, তেমনি বিতর্কও ছড়াচ্ছে। কেউ বলছেন, দেশের চেয়ে নিজের পরিবারকেই বড় করে দেখছেন ভারতীয় অধিনায়ক। কেউ বলছেন উল্টোটা, বাবা হওয়ার সময় তাঁর পরিবারের সঙ্গেই থাকা উচিত। এদিকে রিকি পন্টিং বিষয়টিকে দেখছেন ক্রিকেটীয় দৃষ্টিকোণ থেকে। তাঁর প্রশ্ন, অস্ট্রেলিয়া সফরে কোহলি প্রথম টেস্ট খেলে দেশে ফেরার পর ভারতের কী হবে?

ভারত জাতীয় দল এখন অস্ট্রেলিয়ায়। ২৭ নভেম্বর শুরু হবে ওয়ানডে সিরিজ। এরপর টি-টোয়েন্টি এবং তারপর শুরু হবে টেস্ট সিরিজ। অ্যাডিলেডে দিবারাত্রির প্রথম টেস্ট খেলেই দেশে ফিরবেন কোহলি। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) পিতৃত্বকালীন ছুটি দিয়েছে তাঁকে। অর্থাৎ সিরিজের বাকি তিন টেস্টে বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যানকে পাচ্ছে না ভারত। এ নিয়ে কিছুদিন ধরে যুক্তিতর্ক হচ্ছে ক্রিকেট বিশ্বে। অস্ট্রেলিয়ার উঠানে কোহলিকে ছাড়া কি ভারত কুলিয়ে উঠতে পারবে?

বিজ্ঞাপন

অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক পন্টিং মনে করেন, কোহলির অনুপস্থিতির প্রভাবটা পড়বে ভারতের ড্রেসিংরুমেও। সাবেক এ ব্যাটসম্যান একটি উদাহরণও টেনেছেন। আগেরবার অস্ট্রেলিয়া সফরে গিয়ে সাফল্য পেয়েছিল ভারত। কিন্তু তখন অস্ট্রেলিয়া দলে ছিলেন না স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারের মতো তারকা। ভারত এবার কোহলিকে ছাড়া ঠিকই একই চাপের মুখোমুখি হবে বলে মনে করেন পন্টিং।

অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যমকে পন্টিংয়ের ব্যাখ্যা, ‘একটা বিষয় নিয়ে কেউ তেমন কথা বলেনি, ভারত শেষবার দারুণ খেলেছে। তবে টপ অর্ডারে স্মিথ ও ওয়ার্নার কিন্তু ছিল না। এতে দলে বড় শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছিল। কোহলিকে ছাড়া ব্যাটিংয়ে ও নেতৃত্বে ঠিক একই পরিস্থিতির সম্মুখীন হবে ভারত। অন্য খেলোয়াড়েরাও চাপের মধ্যে থাকবে। রাহানে হয়তো নেতৃত্ব দেবে, তবে সেটি তার ওপর অতিরিক্ত চাপ তৈরি করবে। এ ছাড়া ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ ৪ নম্বরে ব্যাট করতে পারে, এমন কাউকে খুঁজে বের করতে হবে তাদের।’

পন্টিং মনে করেন, কোহলি যে তখন থাকবেন না, সেটি নিয়ে এখনই চাপের মুখে পড়েছে ভারত, ‘আমার মনে হয় না এসব নিয়ে তাদের ভাবনাটা পরিষ্কার। এমনকি সেটি এখনো নয়। প্রথম টেস্টে তাদের ব্যাটিং অর্ডার কেমন হবে, কে ওপেন করবে, কোহলি যাওয়ার পর কে চারে ব্যাট করবে।’ অস্ট্রেলিয়া-ভারত সিরিজ মানেই তো উত্তেজনা ও বাগ্‌যুদ্ধ। লড়াই মাঠে গড়ানোর আগে পন্টিং যে ভারতের দুর্বলতা খুঁচিয়ে বের করে মানসিকভাবে অস্ট্রেলিয়াকে এগিয়ে রাখার চেষ্টা করছেন, তা বোঝাই যাচ্ছে। তবে পন্টিং যে বিষয় ধরিয়ে দিয়েছেন, তা কিন্তু ভারতের জন্য মাথাব্যথাই।

এদিকে অস্ট্রেলিয়ান সংবাদমাধ্যমে গুঞ্জন চলছে, প্রথম টেস্ট ওয়ার্নারের সঙ্গে জো বার্নস অথবা উইল পুকোভস্কি ওপেন করবেন। পন্টিং মনে করেন, অস্ট্রেলিয়ার এই মধুর সমস্যা থেকে ভারতের সমস্যা বেশি, ‘অস্ট্রেলিয়াকে নিয়ে যেসব প্রশ্ন তোলা হচ্ছে, আমার মনে হয় ভারতকে এর চেয়েও বেশি প্রশ্নের জবাব দিতে হবে। শামি, যশপ্রীত বুমরাহর সঙ্গে ইশান্ত না উমেশ যাদব, নাকি নবদ্বীপ সাইনি কিংবা মোহাম্মদ সিরাজের মতো তরুণ কেউ খেলবে? আর স্পিনার? তাদের বেশ কিছু স্পিনার আছে। অ্যাডিলেডে গোলাপি বলের টেস্টে কাকে বেছে নেওয়া হবে, সেই সমাধান করতে হবে ভারতকে।’

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0