৯৭ রান করে ফিরলেন ঋষভ পন্ত
৯৭ রান করে ফিরলেন ঋষভ পন্তছবি: এএফপি

গোটা দিন ব্যাটিং করতে হবে। জিততে হলে করতে হবে ৩০৯—সিডনি টেস্টে পঞ্চম দিনে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভারতের সমীকরণ এমনই। এই টেস্ট জিততে হলে রীতিমতো ইতিহাসই গড়তে হবে অজিঙ্কা রাহানের দলকে। জয়ের জন্য চতুর্থ ইনিংসে ৪০৭ রানের লক্ষ্য মোটেও সহজ কিছু না। টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসেই ৪০০ বা ততোধিক লক্ষ্য তাড়া করে ম্যাচ জেতার ঘটনা মাত্র চারটি।

পাঁচ নম্বরে নিজেদের নাম লেখাতে পঞ্চম দিনে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ এক ভারতীয় দলকেই দেখা গেল। তবে দিনের শুরুতেই অধিনায়ক রাহানেকে হারিয়ে বড় ধাক্কাই খেয়েছিল তারা। তবে এরপর ঋষভ পন্ত আর চেতেশ্বর পূজারা অস্ট্রেলীয় বোলারদের চোখে চোখ রেখেই চালিয়ে গেছেন লড়াই। ১৪৮ রানের দুর্দান্ত এক জুটি গড়ে এ দুজন স্বপ্ন দেখাতেও শুরু করেছিলেন দলকে। পন্ত করেছেন দারুণ ব্যাটিং। পূজারাও চমৎকার। সেঞ্চুরির খুব কাছে পৌঁছে গিয়েছিলেন পন্ত। কিন্তু পারেননি। ৯৭ রানে ক্ষণিকের ভুলে নাথান লায়নের বলে প্যাট কামিন্সকে ক্যাচ দেন তিনি। এরপর পূজারাও টিকতে পারেননি বেশিক্ষণ। ৭৭ রানে জশ হ্যাজলউডের বলে বোল্ড হন তিনি।

এ প্রতিবেদন লেখার সময় ভারতের সংগ্রহ ছিল ৫ উইকেটে ২৭৯। জয়ের জন্য ন্যূনতম ৩৭ ওভার থেকে আরও ১২৮ রান তুলতে হবে তাদের। কাজটা কঠিন। কিন্তু অসম্ভব নয়। এ মুহূর্তে উইকেটে আছেন হনুমা বিহারি (৪) ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন (৬)।

default-image
বিজ্ঞাপন

প্রথম ইনিংসে কনুইয়ের আঘাত পাওয়া পন্ত অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় ইনিংসে উইকেটকিপিংও করেনি। কিন্তু ভারতের দ্বিতীয় ইনিংসে সবাইকে অবাক করে দিয়েই তাঁকে হনুমা বিহারির আগে পাঁচ নম্বরে ব্যাটিংয়ে পাঠানো হয়। নেমেই যথেষ্ট আগ্রাসি ছিলেন তিনি। ৩ রানের মাথায় অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক ও কিপার টিম পেইন তাঁর ক্যাচ ফেলে দেন। এর পরপরই আগ্রাসি হয়ে ওঠেন তিনি। লায়নকে এক ওভারে পরপর দুই বলে একটি বাউন্ডারি ও একটি ছক্কা মারেন। পরে লায়নকে আরও দুটি ছক্কা মারেন। নিজের ফিফটি তিনি তুলে নেন মাত্র ৬৪ বলেই।

৫৬ রানের মাথায় পন্তের ক্যাচ আবারও ফেলে দিয়েছিলেন পেইন। ভারতের ২০১৮–১৯ অস্ট্রেলিয়া সফরে সিডনি টেস্টেই ১৫৯ রানের ইনিংস খেলেছিলেন তিনি। পেইন দ্বিতীয়বার তাঁর ক্যাচ ফেলে দেওয়ার পর সেই স্মৃতিই বারবার সামনে চলে আসছিল। তবে লায়নই তাঁকে ফেরান সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ৩ রান দূরে। ১১৮ বলে ১২টি চার ও ৩টি ছক্কায় সাজিয়েছিলেন তিনি তাঁর ইনিংসটি।

default-image

পূজারা অন্যদিকে ছিলেন ধীরস্থির। এক দিন আগলে রেখে পন্তকে আক্রমণাত্মক হওয়ারই সুযোগ করে দিয়েছেন তিনি। ২০৫ বল খেলে ৭৭ রান করেন তিনি। বাউন্ডারি ছিল ১২টি। আজই টেস্ট ক্যারিয়ারে ৬০০০ রান পূরণ করেন ভারতের এই টেস্ট–স্তম্ভ।

অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে এখনো পর্যন্ত হ্যাজলউড আর লায়ন নিয়েছেন ২টি করে উইকেট।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন