default-image

বাংলাদেশকে ১৯১ রানের লক্ষ্য দিয়েছে শ্রীলঙ্কা। এর চেয়ে কম রানের লক্ষ্য দিয়ে প্রতিপক্ষকে বেঁধে ফেলার রেকর্ড কিন্তু আছে শ্রীলঙ্কার। ২০০-এর নিচে লক্ষ্য দিয়ে শ্রীলঙ্কানরা জিতেছে দুবার। একটিতে হারিয়েছে পাকিস্তানকে, অন্য দল ভারত।

২০০৯ সালের জুলাইয়ে গলে পাকিস্তানকে ১৬৮ রানের লক্ষ্য দেয় শ্রীলঙ্কা। ২ উইকেটে ৭১ রান তোলা পাকিস্তান ৪৬ রানের মধ্যে বাকি ৮ উইকেট হারিয়ে অলআউট ১১৭ রানে। এই আট উইকেটের চারটিই রঙ্গনা হেরাথের। শ্রীলঙ্কা গল টেস্ট জিতে যায় ৫০ রানে। পরেরটি ২০১৫ সালের আগস্টে, গলেই ভারতকে ১৭৬ রানের লক্ষ্য দিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। বিরাট কোহলি, অজিঙ্কা রাহানে, লোকেশ রাহুল, শিখর ধাওয়ান, রোহিত শর্মাদের নিয়ে গড়া ভারতের ব্যাটিং লাইনআপ মুখ থুবড়ে পড়ে ১১২ রানে। হেরাথের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ভারত ম্যাচ হারে ৬৩ রানে। বাঁহাতি স্পিনার নেন ৪৮ রানে ৭ উইকেট।
আজও হেরাথের আঘাতেই শুরুতে চাপে পড়ে বাংলাদেশ। কিন্তু ম্যাচের বাকি গল্পটা ভারত-পাকিস্তানের মতো হতে না দেওয়ার ব্রত নিয়ে ব্যাটিং করছেন তামিম-সাব্বিররা।
প্রতিপক্ষকে ছোট লক্ষ্য দিয়ে শ্রীলঙ্কার টেস্ট জেতার রেকর্ড

রানপ্রতিপক্ষজয়ের ব্যবধান(রান)মাঠসাল
১৬৮পাকিস্তান৫০গল২০০৯
১৭৬ভারত৬৩গল২০১৫
২৪৪ওয়েস্ট ইন্ডিজ৭২কলম্বো২০১৫
২৫২পাকিস্তান৪২ফয়সালাবাদ১৯৯৫
বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন