ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে দলের লজ্জাজনক পরাজয়ের আগে ক্যাসিনোতে গিয়েছিলেন। নিজের ব্যাখ্যানুযায়ী সেখানে গিয়েছিলেন রাতের খাবার খেতে। পরে অবশ্য এ জন্য ক্ষমাও চেয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেটের প্রধান নির্বাচক মঈন খান। তবে তাঁকে দেশে ফেরত এনেছে বোর্ড। দেশে ফিরে করাচি বিমানবন্দর থেকে একরকম পালিয়েই বাঁচতে হলো সাবেক পাকিস্তান ক্রিকেট অধিনায়ককে। একদল যুবক যে দাঁড়িয়ে ছিলেন ডিম আর ব্যানার হাতে তাঁকে ‘অভ্যর্থনা’ জানাতে! এমন রোষানলে পড়বেন, এমনটি আগে থেকেই আঁচ না করতে পারার কোনো কারণ নেই। বাইরে দাঁড়িয়ে ছিল গাড়ি, সঙ্গে কোনো ব্যাগপত্র ছিল না। চুপিচুপি গিয়ে সেই গাড়িতে উঠে বিমানবন্দর ত্যাগ করেছেন। মঈনের দিকে ডিম ছুড়তে না পেরে ক্ষুব্ধ যুবকদের কয়েকজন নিজেদের মাথায় ডিম ভেঙেছেন। তবে বাড়িতে ফিরেও স্বস্তিতে থাকতে পারেননি পাকিস্তানের হয়ে ’৯২-এর বিশ্বকাপজয়ী উইকেটকিপার। তাঁর বাড়ির সামনেও ছিলেন একদল যুবক, পরে পুলিশে খবর দিয়ে নিরাপত্তা বাড়িয়েছেন। কালই লাহোরে ক্রিকেট বোর্ডের তদন্ত কমিটির সামনে হাজির হওয়ার কথা তাঁর। অনুসন্ধানে কী বেরিয়ে এল, তা জানানো হবে বলে জানিয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান শাহরিয়ার খান। রয়টার্স।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন