default-image

ব্যাট-বল ব্যাপারটির সঙ্গে যে আমেরিকানরা অপরিচিত, তেমনটি কিন্তু নয়। আমেরিকায় তুমুল জনপ্রিয় বেজবল খেলায়ও ব্যবহৃত হয় ব্যাট-বল। তবে কোনো একজন আমেরিকানকে যদি প্রশ্ন করা হয়, ‘ক্রিকেট’ কী? নিশ্চিতভাবেই প্রত্যুত্তর আসবে ‘ঝিঁঝিঁপোকা’র নাম। সদা ব্যস্ত আমেরিকানদের মাঝে সাত–আট ঘণ্টা ব্যয় করে ব্যাট-বলের ক্রিকেট খেলা দেখা একটি বিলাসিতাই বটে। এ কারণেই সেই ১৯৬৫ সালেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থার সদস্য হওয়ার পর এত বছরেও যুক্তরাষ্ট্র ক্রিকেট দল নিজ দেশেই জনপ্রিয় নয়।

তবে সাধারণত তাদের সংবাদমাধ্যমের যে সাইটগুলোতে ক্রিকেটের খবর কল্কেই পায় না, এবার কিন্তু বিশ্বকাপের আগ মুহূর্তে বেশ জায়গা পেয়েছে ব্যাট–বলের খেলাটি। ইএসপিএনের যুক্তরাষ্ট্র সংস্করণে সাধারণত থাকে এনবিএল, রাগবি, বেসবল, রেসিংয়েরই খবর। তবে আজ তাদের ওয়েবপেজে বেশ বড় একটা অংশে আছে ক্রিকেট। ২০১১ সালে ক্রাইস্টচার্চে ঘটে যাওয়া বিধ্বংসী ভূমিকম্পের দুর্যোগ কাটিয়ে নিউজিল্যান্ডের বিশ্বকাপের আয়োজক হিসেবে ঘুরে দাঁড়ানোটা বিশেষভাবে উল্লেখ করেছে সাইটটি। এ ছাড়া একটি বেশ মজার কার্টুনের মধ্য দিয়ে সাইটটি বানানোর চেষ্টা করেছে ক্রিকেটের আদর্শলিপি। উদ্দেশ্য, ক্রিকেট-অজ্ঞ মার্কিনদের একটু ক্রিকেটটা শেখানো।
পিছিয়ে নেই মূলধারার মিডিয়াগুলোও। বহুল পঠিত ওয়াল িস্ট্রট জার্নাল তাদের ওয়েবসাইটেও একটি ভিডিওর মাধ্যমে মার্কিনদের বোঝানোর চেষ্টা করেছে ক্রিকেটের নিয়মকানুন, যেগুলো তাদের কাছে বেশ জটিলই ঠেকে। বিশ্বকাপ ক্রিকেট নিয়ে নিয়মিত আয়োজনের অংশ হিসেবে একটি প্রবন্ধে তারা লিখেছে, ‘যাদের ক্রিকেটের সঙ্গে বেড়ে ওঠা হয়নি, তাদের কাছে হয়তো এই খেলার অদ্ভুত সব টার্ম কিম্ভূতকিমাকার লাগতে পারে। গুগলি, বাউন্সার, স্লিপ, সিলি মিড অন, পুল, হুক, ইয়র্কার এমন সব টার্ম নিয়ে কোনো কোনো ম্যাচ চলে সর্বোচ্চ পাঁচ দিন পর্যন্তও!’

নিয়মিত আয়োজন করছে নিউইয়র্ক টাইমসও। যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তান যে ঝড়–ঝঞ্ঝা কাটিয়ে বিশ্বকাপের মতো বড় আসরে নিজেদের জায়গা করে নিতে পেরেছে, এ নিয়ে ছিল তাদের বিশেষ আয়োজন। পত্রিকাটির আলোচিত লেখক ডেরেক উইলিস তাঁর লেখায় তুলে ধরেছেন খেলাটিতে আমেরিকানদের ব্যর্থতাও। যুক্তরাষ্ট্র ক্রিকেট দলের আইসিসির সহযোগী সদস্য পদ পাওয়ার যোগ্যতা নিয়েও প্রশ্ন রেখেছেন এই সাংবাদিক। জনপ্রিয় সংবাদ পত্রিকা ওয়াশিংটন পোস্ট–এর পাতায়ও স্থান পেয়েছে ক্রিকেট বিশ্বকাপের সংবাদ। তথ্যসূত্র: স্টাফ.কো. নিউজিল্যান্ড

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন