বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক নড়াইল-২ আসন থেকে নির্বাচন করার জন্য আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র নিয়েছেন। আগামী ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন। মনোনয়ন পেলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের সময়ই মাশরাফির প্রচারাভিযানে ব্যস্ত থাকার কথা। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে বাংলাদেশের তিনটি ওয়ানডে ৯, ১১ ও ১৪ ডিসেম্বর
default-image

সংবাদ সম্মেলন শুরুর আগেই একটা গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ল মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে। গুঞ্জনের উৎস খোদ বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানের একটি মন্তব্য। পুরস্কার বিতরণী শেষে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন নাজমুল। সেখানেই প্রশ্নটা ওঠে। মাশরাফি নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন, একই সময়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রস্তুতিও নিতে হবে। মাশরাফি দুটি একসঙ্গে সামলাবেন কী করে? জবাবে নাজমুলের মন্তব্য একটা সংশয়ের জন্ম দেয়। সেখান থেকেই ছড়িয়ে পড়ে গুঞ্জন। বাংলাদেশ দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা মাহমুদউল্লাহ অবশ্য জানিয়েছেন, ওয়ানডে সিরিজে মাশরাফিকে পাওয়ার ব্যাপারে তাঁরা আশাবাদী।

নাজমুল যদিও বলেননি ওয়ানডে সিরিজে মাশরাফি খেলবেন না। কিন্তু তাঁর ‘যদি সুযোগ থাকে সে অবশ্যই খেলবে, এক দিনের জন্যও যদি সময় থাকে সে অবশ্যই খেলবে’ মন্তব্যটাই সংশয় তৈরি করছে। যদিও নাজমুল এও বলেছেন, ‘খেলাটা ওর কাছে সব সময়ই প্রাধান্য পাবে।' কিন্তু ‘যদি সুযোগ থাকে’ কিংবা ‘এক দিনের জন্যও’ মন্তব্য অনিশ্চয়তা তৈরি তো করেই।

তবে ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফিকে দল যে চায়, এ নিয়ে কোনো দ্বিধা নেই। টেস্টের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ বেশ স্পষ্ট করেই বললেন, মাশরাফিকে চায় দল, ‘ইনশা আল্লাহ মাশরাফি ভাইকে পাব, আশা করি। কারণ তিনি আমাদের ওয়ানডে অধিনায়ক। তিনি যদি সুস্থ থাকেন, অবশ্যই ওনাকে আমাদের মাঝে পাব। আর ওনাকে আমরা চাই।’

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হালকা চোট নিয়েই মাশরাফি খেলেছেন। সেই চোট অনেকটা সেরেও গেছে। ওয়ানডে সিরিজ না খেলার মতো শঙ্কায় মাশরাফি নেই বলেই জানা গেছে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ নিশ্চিত করার পরও তৃতীয় ওয়ানডে খেলবেন কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে মাশরাফি তখনই বলেছিলেন, একটি ফরম্যাটেই খেলেন বলে কোনো ম্যাচ মিস করতে চান না। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজটি এমনিতেই হয়ে যেতে পারে দেশে মাশরাফির শেষ আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট। বিশ্বকাপের আগে আর দেশে ওয়ানডে ম্যাচ নেই।

বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক এরই মধ্যে নড়াইল-২ আসন থেকে নির্বাচন করার জন্য সরকারি দল আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। আগামী ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনে ভোট গ্রহণের তারিখ। চূড়ান্ত মনোনয়ন পেলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের সময়ই মাশরাফির প্রচারাভিযানে ব্যস্ত থাকার কথা। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে বাংলাদেশের তিনটি ওয়ানডে ৯, ১১ ও ১৪ ডিসেম্বর। আগের তারিখে ভোট ২৩ ডিসেম্বর হওয়ার কথা ছিল, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বাংলাদেশ সফর শেষই হবে ২২ ডিসেম্বর।

এবারের জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের হয়ে নির্বাচন করার কথা আছে বিসিবি সভাপতিরও। আজ নাজমুল সাংবাদিকদের মাশরাফির নির্বাচনী প্রস্তুতি বনাম বাংলাদেশ দলের হয়ে প্রস্তুতির ব্যাপারে বলেছেন, 'কঠিন প্রশ্ন। ওর মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার একটা তারিখ আছে। কবে পূরণ করবে, ওখানে ওর কর্মসূচি কী, ঠিক জানি না। আজ ওর সঙ্গে দেখা হওয়ার সম্ভাবনা আছে। তখন বিস্তারিত কথা হবে। যদি সুযোগ থাকে, সে অবশ্যই খেলবে। এক দিনের জন্যও যদি সময় থাকে, সে অবশ্যই খেলবে। খেলাটা ওর কাছে সব সময়ই প্রাধান্য পাবে।'

নাজমুলের মন্তব্য বিস্তারিত পড়ুন এই খবরে

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন