default-image
করোনাভাইরাস প্রতিরোধে তহবিল গঠনের জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের তিন সংস্করণের অধিনায়কের প্রশংসা করলেন মাশরাফি


করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ক্রিকেটারদের কিছু একটা করতে চাচ্ছিলেন। কিন্তু উদ্যোগটা তাঁরই মস্তিষ্কপ্রসূত। তহবিল গঠনের ডাক দিয়েছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। তাতে একাত্মতা ঘোষণা করেন বাকি ক্রিকেটাররা। আপাতত কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা ১৭ ক্রিকেটার চলতি মাসের বেতনের ৫০ শতাংশ দিয়ে দেবেন এই তহবিলে। চুক্তির বাইরে যে ১০ ক্রিকেটার গত তিন মাসে নিয়মিত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার খেলেছেন তাঁরাও নিজেদের বেতনের ৫০ শতাংশ দেবেন।

কাল এই উদ্যোগ প্রকাশ পেয়েছে। বাংলাদেশ দলের সর্বশেষ সিরিজে নেতৃত্ব ছেড়ে দেওয়া মাশরাফিও প্রশংসা করলেন তাঁর সতীর্থদের। ক্রিকেটারদের চলতি মাসের বেতনের তালিকাটা তিনি প্রকাশ করেছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নিজের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টে। সেখানে ৫০ শতাংশ অর্থ হিসেবে কে কত দান করছেন সে তালিকাও রয়েছে। এই পোস্টের ক্যাপশনে মাশরাফি লিখেছেন, ‘জাতির তিন অধিনায়ক—ভালো করেছ। মুমিনুল—টেস্ট, তামিম—ওয়ানডে, রিয়াদ—টি-টোয়েন্টি। ভালো করেছ বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তোমাদের ভালোবাসি।’

default-image

কেন্দ্রীয় চুক্তির বাইরে থাকা কোনো ক্রিকেটার যখন আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেন, বিসিবি প্রাপ্য গ্রেড ধরে ওই মাসের বেতনটা তাঁকে দিয়ে দেয়। যেমন—মাশরাফি বিন মুর্তজা কেন্দ্রীয় চুক্তিতে নেই। কিন্তু মার্চ মাসে তিনি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন। প্রাপ্য গ্রেড অনুযায়ী এই মাসে তিনি ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকা বেতন পাবেন। করোনা তহবিলে মাশরাফি দেবেন বেতনের ৫০ শতাংশ অর্থাৎ ২ লাখ ১২ হাজার টাকা। ৩১ লাখ টাকার তহবিল গঠন হবে বলে আশা করছেন ক্রিকেটাররা। তবে কর কেটে রাখার পর থাকবে প্রায় ২৫ লাখ টাকা।

প্রকাশিত তালিকায় দেখা যাচ্ছে গ্রেড অনুযায়ী মুশফিকের চলতি মাসের বেতন ৬ লাখ ২০ হাজার টাকা। এখান থেকে ৫০ শতাংশ অর্থ দান করলে অঙ্কটা দাঁড়ায় ৩ লাখ ১০ হাজার টাকা। তামিম ইকবাল মুশফিকের চেয়ে একটু বেশি পেয়ে থাকেন (৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা)। এখান থেকে হিসেব অনুযায়ী তামিম দেবেন ৩ লাখ ২৫ হাজার টাকা। ২ লাখ ৭৫ হাজার টাকা বেতন থেকে লিটন দাস দেবেন ১ লাখ ৩৭ হাজার ৫০০ টাকা। মোট ২৭ ক্রিকেটার মিলে এ তহবিল

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0