গতকাল অনুশীলনে শাহাদাত।
গতকাল অনুশীলনে শাহাদাত।ছবি: প্রথম আলো

গত জাতীয় লিগে সতীর্থের গায়ে হাত তুলে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হন পেসার শাহাদাত হোসেন। পাঁচ বছরের মধ্যে শেষ দুই বছর স্থগিত নিষেধাজ্ঞা। কিন্তু ১৬ মাস না যেতেই বিসিবির কাছে শাস্তি কমানোর আবেদন করেছেন তিনি। খেলতে চান আগামী মার্চের শেষে শুরু হতে যাওয়া জাতীয় লিগে।

ক্যানসারে আক্রান্ত মায়ের চিকিৎসার জন্য অর্থের প্রয়োজন শাহাদাতের। জাতীয় লিগে খেলে মায়ের চিকিৎসা করাতে চান তিনি। শাহাদাত কাল প্রথম আলোকে বলছিলেন, ‘যা হয়েছে, তার জন্য আমি অনুতপ্ত। ভুল হয়েছে আমার। চেষ্টা করব এমন ভুল যেন আর না হয়। বাকি যত দিনই খেলি, আর কোনো সমস্যা হবে না। আমার মা ক্যানসারে আক্রান্ত। এখন খেলায় ফিরে মায়ের চিকিৎসা করাতে চাই।’

বিজ্ঞাপন
default-image

নিষেধাজ্ঞার কারণে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে শাহাদাতের অনুশীলন করতে পারার কথা নয়। কিন্তু কয়েক দিন ধরে একাডেমি মাঠে অনুশীলন করছেন তিনি। এত দিন কেউ কিছু না বললেও কাল প্রধান কিউরেটর গামিনি ডি সিলভা শাহাদাতকে মাঠ ব্যবহার করতে বারণ করেন।

বাংলাদেশ দলের হয়ে ৩৮টি টেস্ট, ৫১টি ওয়ানডে ও ৬টি টি–টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন শাহাদাত। তবে ২০১৫ সালের মে মাসের পর জাতীয় দলের হয়ে খেলেননি আর কোনো ম্যাচ। ওয়ানডেতে বাংলাদেশ দলের প্রথম হ্যাটট্রিকটি এই পেসারেরই। ২০০৬ সালের আগস্টে হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে শাহাদাত করেছিলেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সেই হ্যাটট্রিক।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন