default-image

‘অর্জুন টেন্ডুলকার’ নামটা অনেক দিন ধরেই ভারতীয় ক্রিকেটে বেশ পরিচিত। দেশের ইতিহাসের সেরা ব্যাটসম্যানের সন্তান হলেও বোলিংকেই বেছে নিয়েছেন অর্জুন। বিখ্যাত বাবার সন্তান হলে যা হয়, যা-ই করেন, আলোচনায় চলে আসে। এ মাসের মাঝপথেই স্বীকৃত ক্রিকেটে অভিষেক হয়ে গেছে তাঁর। সৈয়দ মুশতাক আলী ট্রফিতে মুম্বাইয়ের হয়ে দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে ফেলেছেন অর্জুন। এবার লিস্ট ‘এ’তে অভিষেকের পালা।

শচীন টেন্ডুলকার নিজে পেসার হওয়ার স্বপ্নটা পূরণ করেননি। তবে অর্জুন সে পথেই হেঁটেছেন। ২১ বছর বয়সী এই বাঁহাতি পেসারকে বিজয় হাজারে ট্রফির প্রাথমিক দলের ক্যাম্পে ডাকা হয়েছে। গতকাল নিজেদের ওয়েবসাইটে মুম্বাই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন (এমসিএ) ঘরোয়া লিস্ট এ টুর্নামেন্টের ক্যাম্পে ডাক পাওয়া ১০৪ জন খেলোয়াড়ের নাম প্রকাশ করেছে। সেই তালিকায় অর্জুন ছাড়াও আছেন পৃথ্বী শ।

বিজ্ঞাপন
default-image

অনেক তরুণ ক্রিকেটারই বিখ্যাত পারিবারিক নামের চাপ সামলাতে পারেন না। অর্জুন টেন্ডুলকারের ক্ষেত্রে কী ঘটবে, সেটা বলা যাচ্ছে না। তবে বাবার তুলনায় দৌড়ে বেশ কিছুটা পিছিয়েই আছেন অর্জুন। ১৬ বছর বয়সেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়ে গিয়েছিল শচীনের। অর্জুনের স্বীকৃত ক্রিকেটে ডাক পেতে পেতেই ২১ বছর হয়ে গেছে। তবে ধীরে শুরু হলেও তারকা ক্রিকেটারদের সঙ্গে খেলার অভিজ্ঞতা হয়ে গেছে তাঁর। ভারতীয় দলের নেটে বোলিং করার অভিজ্ঞতাও হয়ে গেছে অর্জুনের।

গত ১৫ জানুয়ারিতে সৈয়দ মুশতাক আলী ট্রফিতে অভিষেক হয়েছে অর্জুনের। মুম্বাইয়ের হয়ে অভিষেক অবশ্য ভালো হয়নি। ১১ নম্বরে নামেন তাই ব্যাট করার সুযোগ পাননি। বোলিংয়ে উইকেটের দেখা পেয়েছেন, কিন্তু ৩ ওভারে ৩৪ রান দেওয়ায় আর বোলিং কোটা পূরণ করা হয়নি। প্রতিপক্ষ হরিয়ানা ১৪ বল আগে ম্যাচ শেষ করে এসেছে। অর্জুনের দ্বিতীয় ম্যাচেও মুম্বাইয়ের ভাগ্য বদলায়নি। এদিন দল ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ায় ব্যাটিং করার সুযোগ পেয়েছিলেন। স্বীকৃত ক্রিকেটে প্রথম রানের দেখা পেয়েছেন সেদিনই। ৭ বলে ৩ রানের পর বোলিংয়েও কোটা পূরণ হয়েছে তাঁর।

default-image

দল মাত্র ৯৪ রান করায় কিপটে বোলিং করা দরকার ছিল। কিন্তু সতীর্থরা সে কাজ করতে পারলেও অর্জুন ব্যর্থ হয়েছেন। ৪ ওভারে ১ উইকেট পেলেও ৩৩ রান দিয়েছেন। মুম্বাইও হেরেছে ৬ উইকেটে। নিজেদের গ্রুপে সবার শেষে জায়গা হয়েছে মুম্বাইয়ের। আপাতদৃষ্টিতে তাই শুরুটা হতাশাজনকই হয়েছে অর্জুন টেন্ডুলকারের।

মুম্বাই অবশ্য এমন পারফরম্যান্সে আশা হারাচ্ছে না। এ কারণেই বিজয় হাজারের ক্যাম্পে ডাক পেয়েছেন অর্জুন। এবার রঞ্জি ট্রফি না হলেও লিস্ট ‘এ’র টুর্নামেন্ট করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মুশতাক আলী ট্রফিতে বাদ পড়া মুম্বাই বিজয় হাজারের জন্য আগ থেকেই ক্যাম্প শুরু করছে। আর সেখানেই ডাক পেয়েছেন অর্জুন ও পৃথ্বী শ। অস্ট্রেলিয়া সফরে সিরিজের প্রথম টেস্ট খেলে বাদ পড়া পৃথ্বী শ ছাড়াও ক্যাম্পে নাম আছেন শ্রেয়াস আয়ার, শিভাম দুবে, সুর্যকুমার যাদব, যশস্বী জয়সওয়াল, সরফরাজ খান ও ধবল কুলকার্নিদের।

আগামী ১ ফেব্রুয়ারি নির্বাচিত খেলোয়াড়দের সবাইকে শারদ পাওয়ার ক্রিকেট একাডেমিতে উপস্থিত হওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন