এনজেডসি প্রধান নির্বাহী ডেভিড হোয়াইট কাল সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘এটা আমাদের খেলাধুলায় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি। এর মধ্য দিয়ে এনজেডসি, গুরুত্বপূর্ণ অ্যাসোসিয়েশন ও খেলোয়াড়দের আর আলাদা করা যাবে না। ক্রিকেটকে এগিয়ে নেওয়ার ভিতটা তৈরি হলো।’

এনজেডসির অধীন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ওয়ানডে ম্যাচ ফি ৪ হাজার নিউজিল্যান্ড ডলার। টি–টোয়েন্টিতে ২৫০০ নিউজিল্যান্ড ডলার। ঘরোয়া প্রতিযোগিতা, যেমন ফোর্ড ট্রফিতে ম্যাচ ফি ৮০০ নিউজিল্যান্ড ডলার, সুপার স্ম্যাশে ৫৭৫ নিউজিল্যান্ড ডলার। ছেলেদের টেস্ট ক্রিকেটে ম্যাচ ফি ১০,২৫০ নিউজিল্যান্ড ডলার ও প্লাঙ্কেট শিল্ডে ম্যাচ ফি ১৭৫০ নিউজিল্যান্ড ডলার।

ক্রিকইনফো জানিয়েছে, নতুন এই চুক্তি অনুযায়ী নিউজিল্যান্ডের শীর্ষ নারী ক্রিকেটার যিনি, তিনি বছরে সর্বোচ্চ ১ লাখ ৬৩ হাজার ২৪৬ নিউজিল্যান্ড ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৯৪ লাখ ৯১ হাজার টাকা) আয় করতে পারবেন। চুক্তির তালিকায় একটু নিচে থাকা ক্রিকেটারদের সঙ্গে শীর্ষ ক্রিকেটারদের আয়ের তারতম্য চোখে বিঁধার মতো হবে না।

উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, তালিকার নবম শীর্ষ নারী ক্রিকেটার বছরে ১ লাখ ৪৮ হাজার ৯৪৬ নিউজিল্যান্ড ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৮৬ লাখ ৫৯ হাজার টাকা) আয় করবেন। আর ১৭তম নারী ক্রিকেটারের বার্ষিক আয় দাঁড়াবে ১ লাখ ৪২ হাজার ৩৪৬ নিউজিল্যান্ড ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৮২ লাখ ৭৬ হাজার টাকা)।

নতুন চুক্তিতে ঘরোয়া ক্রিকেটে আয়ের তারতম্যও কমিয়ে আনা হয়েছে। নিউজিল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রতিটি অ্যাসোসিয়েশনের শীর্ষস্থানীয় নারী ক্রিকেটাররা বছরে সর্বোচ্চ ১৯,১৪৬ নিউজিল্যান্ড ডলার আয় করতে পারবেন। তালিকার ছয়ে থাকা নারী ক্রিকেটারের আয় শীর্ষস্থানীয়দের চেয়ে খুব বেশি কম হবে না। সর্বোচ্চ ১৮,৬৪৬ নিউজিল্যান্ড ডলার আয় করতে পারবেন তিনি। তাঁর চেয়ে মাত্র ৫০০ নিউজিল্যান্ড ডলার কম আয় করবেন ১২তম ক্রিকেটার।

চুক্তিতে নারী ক্রিকেটারদের সংখ্যা ৫৪ থেকে ৭২-এ উন্নীত করা হয়েছে। উত্তর বনাম দক্ষিণ নামে একটি সিরিজও চালু করা হবে। নিউজিল্যান্ড নারী দলের অধিনায়ক সোফি ডিভাইন বলেছেন, ‘নিউজিল্যান্ডের ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক নারী ক্রিকেটারদের ছেলেদের সমান মর্যাদা পাওয়াার বিষয়টি অসাধারণ। তরুণ মেয়েদের খেলাটিতে টেনে আনার জন্য এটি অনেক বড় পদক্ষেপ।’

default-image

নিউজিল্যান্ড ছেলেদের জাতীয় দলের অধিনায়ক উইলিয়ামসন বলেছেন, ‘আমাদের আগে যাঁরা খেলে গেছেন, তাঁদের তৈরি করা ভিতের ওপর দাঁড়িয়ে আগামীর নারী–পুরুষ সব পর্যায়ের ক্রিকেটারদের সমর্থন দেওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ। এই চুক্তি সে লক্ষ্য অর্জনে এগিয়ে যাবে।’ ১ আগস্ট থেকে চুক্তিটি কার্যকর হবে।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন