সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমান।
সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমান।ফাইল ছবি: প্রথম আলো

করোনাভাইরাসের আক্রমণে স্থগিতই হয়ে গেছে আইপিএল। এখন প্রশ্ন, ভারতে থাকা বিদেশি ক্রিকেটাররা দেশে ফিরবেন কীভাবে? কীভাবে দেশে ফিরবেন বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমান?

ভারতে করোনার সংক্রমণ মারাত্মক আকার ধারণ করায় অনেক দেশই ভারতফেরত ব্যক্তিদের দেশে প্রবেশের ওপর কড়াকড়ি আরোপ করেছে। বাংলাদেশ সরকারও সর্বশেষ নির্দেশনায় বলেছে, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ফেরা ব্যক্তিদের ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক।

সে ক্ষেত্রে কলকাতা নাইট রাইডার্সে খেলা সাকিব এবং রাজস্থান রয়্যালসে খেলা মোস্তাফিজকেও এই নিয়মের মধ্য দিয়েই যেতে হবে বলে জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন চৌধুরী।

বিজ্ঞাপন

এ মাসের শেষ সপ্তাহে শুরু হতে যাওয়া শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ওয়ানডের সিরিজ সামনে রেখে সাকিব ও মোস্তাফিজের দেশে ফেরার কথা ছিল ১৯ মে। কিন্তু তখন ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে গেলে সিরিজটাই খেলতে পারতেন না তাঁরা।

বিসিবি তাই সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগের সঙ্গে আলোচনা করে তাঁদের কোয়ারেন্টিনের সময় কমিয়ে আনার উদ্যোগ নিয়েছিল। আইপিএল স্থগিত হয়ে যাওয়ায় এখন পরিস্থিতি ভিন্ন। তা ছাড়া আইপিএলের জৈব সুরক্ষাবলয়ের ওপরও আর আস্থা রাখতে পারছে না বিসিবি।

default-image

নিজাম উদ্দিন চৌধুরী আজ প্রথম আলোকে বলেছেন, ‘পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে আমরাও মনে করি, সবকিছু সরকারি নির্দেশনা মতো হওয়া উচিত। যেহেতু আইপিএলের জৈব সুরক্ষাবলয় নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে, সেখানে করোনা ছড়িয়েছে, সেখান থেকে আসা কাউকে সরাসরি দলের সঙ্গে নিয়ে আমরা অন্য ক্রিকেটারদের ঝুঁকিতে ফেলতে পারি না। সাকিব, মোস্তাফিজের ক্ষেত্রে সরকার যেভাবে সিদ্ধান্ত নেয়, সেভাবেই সব হবে। সিরিজের আগে আমাদের হাতে এখন সময়ও আছে।’

তবে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন শুরুর ৪–৫ দিন পর করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ হলে এবং কোনো উপসর্গ না থাকলে অনেক সময় কোয়ারেন্টিন থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। সাকিব, মোস্তাফিজের ক্ষেত্রে নিয়ম একটু শিথিল হবে—এমনটাই আশা করছে বিসিবি। সে ক্ষেত্রে দু–এক দিনের মধ্যে ফিরতে পারলে শ্রীলঙ্কা সিরিজের আগেই কোয়ারেন্টিন শেষ হয়ে যাবে তাঁদের। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম ওয়ানডেটি হওয়ার কথা ২২ মে।

এই দুই ক্রিকেটার ভারত থেকে ফিরবেন কবে এবং কীভাবে—সেটাও একটা প্রশ্ন। ভারতের সঙ্গে তো এখন সব ধরনের যোগাযোগই বন্ধ বাংলাদেশের! বিসিবির প্রধান নির্বাহী জানিয়েছেন, আইপিএল স্থগিত হয়ে যাওয়ায় বিসিসিআইর ব্যবস্থাপনাতেই বিদেশি ক্রিকেটারদের দেশে ফেরত পাঠানোর কথা। সে ক্ষেত্রে সাকিব, মোস্তাফিজ দেশে ফিরতে পারেন বিসিসিআইর ভাড়া করা বিমানে। ‘এ ক্ষেত্রে কোনো সহযোগিতা লাগলে সেটা আমরা করব’—বলেছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী।

default-image

ওদিকে আজ বিকেলে শ্রীলঙ্কা থেকে ঢাকায় ফিরে শেষ পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টিনে গেছেন বাংলাদেশ দলের সদস্যরা। কাল রাত পর্যন্ত বাংলাদেশ দলেরও তিন দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন করার কথা ছিল। সকালে বিসিবির আবেদনে সাড়া দিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটার–কর্মকর্তাদের হোম কোয়ারেন্টিনের অনুমতি দেয়। বিসিবির প্রধান নির্বাহী বলেছেন, ‘আমাদের অনুরোধে তারা বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করেছে। দলের সবাই হোম কোয়ারেন্টিনে গেছে।’ তবে এই হোম কোয়ারেন্টিনটা হবে ১৪ দিনের।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন