default-image

বরিশালের বিপক্ষে একমাত্র ইনিংসে ১৯৭। ঢাকা মহানগরের বিপক্ষে একমাত্র ইনিংসে ৩১৪। এবার চট্টগ্রামের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে অবিচ্ছিন্ন ১১২ রান। টানা তৃতীয় ইনিংসে শতরানের জুটি গড়লেন ঢাকা বিভাগের দুই ওপেনার আবদুল মজিদ ও রনি তালুকদার। প্রথম দুই ম্যাচই ইনিংস ব্যবধানে জেতা ঢাকা এর আগে কাল চট্টগ্রামকে অলআউট করে ১৫৫ রানে।
বিকেএসপির ৩ নম্বর মাঠে ১০ উইকেট পড়লেও ২ নম্বর মাঠে রাজশাহী-সিলেট ম্যাচে কাল উইকেট পড়েছে মাত্র ২টি। ওপেনার মাইশুকুরের ক্যারিয়ার-সর্বোচ্চ ১৫৮ ও জুনায়েদ সিদ্দিকের অপরাজিত ১০২ রানে প্রথম দিন শেষে রাজশাহী ৩১৬ রান করেছে ২ উইকেটে। দ্বিতীয় উইকেটে ১৯৭ রান যোগ করেন মাইশুকুর-জুনায়েদ। রাজশাহীর ২টি উইকেটই নিয়েছেন শততম প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলতে নামা বাঁহাতি স্পিনার এনামুল হক জুনিয়র।
ফতুল্লায় সেঞ্চুরি পেয়েছে ঢাকা মহানগরের সাদমান ইসলাম। অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে শ্রীলঙ্কায় যুব টেস্টে টানা দুটি ফিফটি করা সাদমান দিন শেষে অপরাজিত ১১৮ রানে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এই বাঁহাতির প্রথম সেঞ্চুরিতে বরিশালের বিপক্ষে দিন শেষে মহানগরের রান ৪ উইকেটে ২৩৮। মিরপুরে খুলনার বিপক্ষে রংপুর করেছে ৬ উইকেটে ২৬১ রান। সর্বোচ্চ ৬৩ রান ওপেনার তারিক আহমেদের।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
খুলনা-রংপুর, মিরপুর
রংপুর ১ম ইনিংস: ৯০ ওভারে ২৬১/৬ (তারিক ৬৩, মাহমুদুল ৪৬, নাঈম ৪৪, আরিফুল ৪২*, ধীমান ৩১; রবি ২/২৪, মোস্তাফিজুর ১/২২, মুরাদ ১/৫৬, রাজ্জাক ১/৬৯, ডলার ১/৭০)।
ঢাকা মহানগর-বরিশাল, ফতুল্লা
ঢাকা মহানগর ১ম ইনিংস: ৯১ ওভারে ২৩৮/৪ (সাদমান ১১৮*, মার্শাল ৫৬, শামসুর ৪৭; নাসুম ২/৪১, আল আমিন ১/১৮, কামরুল ১/৫৬)।
রাজশাহী-সিলেট, বিকেএসপি-২
রাজশাহী ১ম ইনিংস: ৯২ ওভারে ৩১৬/২ (মাইশুকুর ১৫৮, জুনায়েদ ১০২*, হাবিবুর ৩২; এনামুল জু. ২/৭৪)।
ঢাকা বিভাগ-চট্টগ্রাম, বিকেএসপি-৩
চট্টগ্রাম ১ম ইনিংস: ৬৯ ওভারে ১৫৫ (নাজিমউদ্দিন ৩০, নাঈম জু. ২৯, ইরফান ২৭; মোশাররফ ৫/৩৭, শুভাগত ২/২৭, তাইবুর ১/৪, সাব্বির ১/৩৩, জুবায়ের ১/৪৬)। ঢাকা বিভাগ ১ম ইনিংস: ৩২ ওভারে ১১২/০ (রনি ৬২*, মজিদ ৪৯*)।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন