default-image

চলছে পবিত্র রমজান মাস। বিশ্বব্যাপী মুসলিমরা রোজা রাখছেন আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের আশায়। পালন করছেন বিভিন্ন ধর্মীয় রীতিনীতি। মুসলিম খেলোয়াড়েরাও এর ব্যতিক্রম নন। খেলার মধ্যেই রোজা রাখার চেষ্টা করছেন অনেকেই। আইপিএলেও মুসলিম ক্রিকেটাররা খেলার পাশাপাশি রোজা রাখছেন, মাঠের বাইরে পালন করছেন ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান। সন্ধ্যায় করছেন ইফতার।

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে খেলছেন এই তিন আফগানি স্পিনার—রশিদ খান, মোহাম্মদ নবী ও মুজিব উর রেহমান। মাঠের লড়াইয়ে দলের গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্র এই তিনজন। তা–ও মাঠের চিন্তা তাঁদের রোজা রাখা থেকে বিরত রাখতে পারেনি। নিয়মিতই রাখছেন রোজা, না খেয়ে আছেন, পালন করছেন ধর্মীয় অনুশাসন। আবার সবার সঙ্গে মিলেমিশে ইফতারও করছেন।

সতীর্থদের দেখেই কিনা হায়দরাবাদের অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার আর সহ-অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনেরও সাধ হলো ‘রোজা’ রাখলে কেমন লাগে সেটা দেখার! হ্যাঁ, বিশ্বের অন্যতম সেরা এই দুই ব্যাটসম্যান রশিদ-নবীদের দেখাদেখি সেটাই করেছেন। আর সে খবর সবাইকে খুশি মনে জানিয়েছেন রশিদ নিজেই।

বিজ্ঞাপন

রশিদের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে দেখা গেছে এই দৃশ্য। সতীর্থদের সঙ্গে ইফতার করতে বসেছেন এই রিস্ট স্পিনার। সঙ্গে যোগ দিয়েছেন ওয়ার্নার আর উইলিয়ামসনও। ভিডিওতে রশিদ প্রথমে ওয়ার্নারকে জিজ্ঞাসা করলেন, ‘ডেভ, তোমার রোজা রাখা কেমন চলছে?’

হাসতে হাসতে ওয়ার্নার জবাব দিলেন, ‘বেশ ভালো। তবে আমি অনেক তৃষ্ণার্ত ও ক্ষুধার্ত।’ পরে উইলিয়ামসনের দিকে ক্যামেরা তাক করে রশিদ জিজ্ঞেস করলেন, ‘কেন, কেমন অনুভব করছ?’

ওয়ার্নার বৃদ্ধাঙ্গুলি দিয়ে ‘গুড লাক’ চিহ্ন দেখিয়ে বললেন, ‘খুব ভালো বোধ করছি, ধন্যবাদ।’ এর পরেই রশিদ খোলাসা করলেন রহস্যের, ‘বন্ধুরা, এই দুই কিংবদন্তি আজ আমাদের সঙ্গে না খেয়ে আছে। এদের আমাদের সঙ্গে ইফতারির টেবিলে পেয়ে ধন্য মনে করছি।’ পাশ দিয়ে ওয়ার্নার বলে উঠলেন, ‘অনেক, অনেক কঠিন কাজ!’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন