মুমিনুলকে ফিফটিতে অভিনন্দন জানাচ্ছেন লিটন।
মুমিনুলকে ফিফটিতে অভিনন্দন জানাচ্ছেন লিটন। ছবি: শামসুল হক।

মধ্যাহৃভোজনের খাবার ভালোই স্বাদ লাগার কথা বাংলাদেশ দলের। লিড এর মধ্যেই তিন শ পেরিয়ে গেছে। আজ চতুর্থ দিনে দুটি সেশন ছাড়াও হাতে আছে কালকের পুরো একটা দিন। এই শক্ত অবস্থান থেকে চট্টগ্রাম টেস্ট কি জিততে পারবে বাংলাদেশ?

৩ উইকেটে ৪৭ রান নিয়ে কাল তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করেছিল বাংলাদেশ। আজ প্রথম সেশনে ২৯ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে ১০২ রান তুলেছে মুমিনুল হকের দল। লিড যতটা সম্ভব বাড়িয়ে নেওয়ায় সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন মুমিনুল। আজ প্রথম সেশনে ফিফটি তুলে নেন তিনি। ষষ্ট উইকেটে লিটন দাসের সঙ্গে ১২২ বলে ৭৬ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে মধ্যাহৃভোজনে যান দুজন।

প্রথম সেশনের খেলা শেষে মধ্যাহৃভোজন বিরতির আগে দ্বিতীয় ইনিংসে ৪ উইকেটে ১৪৯ রান তুলেছে বাংলাদেশ। লিড এর মধ্যেই ৩২০।

বিজ্ঞাপন

আজ দিনের খেলার দশম ওভারে মুশফিকুর রহিমকে হারায় বাংলাদেশ। রাকিম কর্নওয়ালের নিচু হয়ে আসা একটি বলে এলবিডব্লু হয়ে ফিরেছেন মুশফিক। রিভিউ নিয়েও রক্ষা পাননি। ৪৭ বলে ১৮ রান করে ফেরেন তিনি।

default-image

এরপর লিটনের সঙ্গে জুটি গড়ে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিচ্ছেন মুমিনুল। বাঁহাতি স্পিনার জোমেল ওয়ারিক্যানের বিপক্ষে লিটন একটু ভুগলেও অন্য প্রান্তে জমাট ব্যাট করছেন মুমিনুল। ১২৭ বলে ৮৩ রানে অপরাজিত থেকে সেঞ্চুরির পথে এগিয়ে যাচ্ছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। তাঁর সঙ্গী লিটন অপরাজিত আছেন ৩৮ রানে।

আগের দিন শেষ সেশনে যেখানে থেমেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ, আজ শুরুটা সেখান থেকেই করেছে তারা।

কাল শেষ দিকে এক প্রান্ত থেকে রাকিম কর্নওয়ালের স্পিন এবং অন্য প্রান্ত থেকে শ্যানন গ্যাব্রিয়েল পেস বল করেন। আজও দুই প্রান্ত থেকে এ দুই বোলারকে দিয়ে বোলিং শুরু করান ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক ক্রেগ ব্রাফেট।

default-image

গ্যাব্রিয়েল কালকের মতোই মুমিনুলের ব্যাটিংয়ের সময় তাঁর শরীর তাক করে বাউন্সার মারার চেষ্টা করছেন। লেগ গালি ও শর্ট লেগে ফিল্ডার রাখায় গ্যাব্রিয়েলের উদ্দেশ্য পরিষ্কার। রাউন্ড দ্য উইকেট এসে মারা গ্যাব্রিয়েলের বাউন্সারগুলো অবশ্য দক্ষতার সঙ্গেই মোকাবিলা করছেন মুমিনুল। বলা ভালো, খেলছেন ঠান্ডা মাথায়। মুশফিকের সঙ্গে ৯১ বলে ৪০ রানের জুটি গড়েন মুমিনুল।

কাল তৃতীয় দিনের খেলা শেষে ক্রিকইনফোকে তাইজুল বলেন, ‘আমার মনে হয় আড়াই শ এই উইকেটে যথেষ্ট। তবে (কাল) প্রথম সেশনে যেমন বল করেছি, তেমন বল করলে কাজটা কঠিন হবে। আমাদের বোলিং ভালো করতে হবে, যেমনটা আমরা পরে করতে পেরেছি। আমার মনে হয় ৩০০–৩৫০ রানের লক্ষ্য দিতে হবে।’

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন