বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ফখর ও দানিশের সঙ্গে ৩৪ রানের জুটি গড়ে বিপর্যয় সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। কিন্তু অন্য প্রান্তে কেউ বেশিক্ষণ দাঁড়াতে পারেননি বলে পাকিস্তানের স্কোরও বড় হয়নি।

এমন নয় যে রিজওয়ান মন্থর ব্যাট করেছেন। ১০ চার ও ১ ছক্কায় ৬১ বলে ৮২ রানের অপরাজিত ইনিংস—হ্যাঁ, এমন মারকুটে ইনিংসের পরও রিজওয়ানকে আউট করতে পারেননি জিম্বাবুয়ের বোলাররা।

সাম্প্রতিক সময়ে টি-টোয়েন্টি ম্যাচে অপরাজিত থাকাটা যেন অভ্যাসে পরিণত করেছেন রিজওয়ান। শেষ পাঁচ ম্যাচের মধ্যে তিন ইনিংসেই অপরাজিত!

এর মধ্যে আজ ইনিংসের শেষ ওভারে একাই ২০ রান নিয়ে ম্যাচে পার্থক্য গড়ে দেন রিজওয়ান। কেননা, ম্যাচটা পাকিস্তান যে জিতেছে ১১ রানে।

তাড়া করতে নেমে জিম্বাবুয়ে ১০০ রান তুলেছে পাকিস্তানের চেয়ে ভালো ব্যাট করে। এ সময়ের মধ্যে জিম্বাবুয়েও ৫ উইকেট হারিয়েছে কিন্তু ওভারসংখ্যা তখন ১৩.২। জয়ের জন্য শেষ ৫ ওভারে ৫২ রান দরকার ছিল জিম্বাবুয়ের।

রায়ার্ন বার্ল ও লুক জঙ্গুয়ে শেষ ১২ বলে ২৮ রানের দূরত্বে নিয়ে যান জিম্বাবুয়েকে। ১৯তম ওভারে মোহাম্মদ হাসনাইন মাত্র ৮ রান দেওয়ায় শেষ ওভারে ২০ রানের লক্ষ্য আর পূরণ করতে পারেনি জিম্বাবুয়ে। ৩৪ রান এসেছে ক্রেগ আরভিনের ব্যাট থেকে। ২৩ বলে ৩০ রানে এক প্রান্ত ধরে রেখেছিলেন লুক জঙ্গুয়ে। পাকিস্তানের হয়ে ৩ উইকেট নেন উসমান কাদির।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন