default-image

ঘটনার বর্ণনা পড়ে যতটা সহজ বলে মনে হচ্ছে, কাজটা নিঃসন্দেহে অতটা সহজ ছিল না। তেওয়াতিয়া নিজে তখন কী ভাবছিলেন? সম্ভাব্য হারের আশঙ্কায় তাঁর মন কী দুরুদুরু করে কেঁপে উঠছিল না? ডাগআউটে ক্রমাগত অধিনায়ক হার্দিক পাণ্ডিয়া অসন্তুষ্ট হয়ে মাথা নাড়িয়ে যাচ্ছিলেন, হয়তো ওভারের শুরুতে আউট হয়ে যাওয়ার জন্য নিজেকে শাপ-শাপান্ত করছিলেন, এসব দেখে তেওয়াতিয়ার মাথায় ওপর চাপ কি আরও বেড়ে যাচ্ছিল না?

হয়তো যাচ্ছিল। কিন্তু ম্যাচ শেষে তেওয়াতিয়ার কথা শুনে সেটা বোঝার জো কোথায়! ফুরফুরে মেজাজে তেওয়াতিয়া জানিয়ে দিলেন, অত শত চিন্তা করেননি। মাথায় শুধু একটা চিন্তাই রেখেছিলেন, যেভাবে হোক, ছক্কা মারতে হবে। অন্য কোনো দুশ্চিন্তাকে প্রশ্রয়ই দেননি, ‘অসাধারণ এক অনুভূতি। আসলে ওই পরিস্থিতিতে আলাদা করে চিন্তা করার কিছুই ছিল না। ক্রিজে গিয়ে শুধু ছক্কা মারতে হবে, আমি আর ডেভিড (মিলার) তখন খালি এটাই ভাবছিলাম।’

default-image

তবে কীভাবে ছক্কা দুটি মারবেন, ওডিন স্মিথের বল দেখে সে পরিকল্পনা ঠিকই মনে মনে করে ফেলেছিলেন তেওয়াতিয়া, ‘আমি স্মিথের বিপক্ষে পরিকল্পনা করেই নেমেছিলাম। শেষ বলটা একদম ব্যাটের মাঝখানে লেগেছিল, আমি সেটা দেখেই বুঝেছিলাম ছক্কা হবে। প্রথম বলটাও ও অফ স্ট্যাম্পের অনেক বাইরে করে, সেটা দেখেই আমার ধারণা হয় শেষ বলটাও ও একই জায়গায় ফেলার চেষ্টা করবে।’

২০১৪ সালে রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে আইপিএল ক্যারিয়ার শুরু করলেও ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে পরিচিত হতে হতে অর্ধযুগ লেগে যায় তেওয়াতিয়ার। ততদিনে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব আর দিল্লি ক্যাপিটালসের মতো ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে খেলে ফেলেছেন। কিন্তু কোনোভাবেই আলো ছড়াতে পারছিলেন না। ২০২০ আইপিএলে পাদপ্রদীপের আলোয় আসার সুযোগ পান এই লেগ স্পিনিং অলরাউন্ডার। মৌসুমের শুরুর দিকে ঝড়ো ব্যাটিং করে আলো ছড়িয়েছিলেন, কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে এক ওভারে পাঁচ ছক্কা মেরে যুবরাজ সিংয়ের মতো তারকার বুকে কাঁপন ধরিয়ে দিয়েছিলেন!

সব মিলিয়ে সেদিন ৭ ছক্কায় ৩১ বলে ৫৩ রান করেছিলেন। ১১ ইনিংসে ২৫৫ রান করেছিলেন ৪২.৫ গড়ে, সব মিলিয়ে স্ট্রাইক রেট ছিল ১৩৯.৩৪। ভালো পারফরম্যান্সের পুরস্কারস্বরূপ ইংল্যান্ড সিরিজে ডাক পেয়েছিলেন। আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে পারেননি যদিও।

এরপর থেকেই আলোচনায় আসা শুরু তেওয়াতিয়ার। যে কারণে এবার নতুন আসা ফ্র্যাঞ্চাইজি গুজরাট টাইটানস তাঁকে নয় কোটি রুপির বিনিময়ে কিনে নেয়। টাকাটা যে অপাত্রে যায়নি, তার প্রমাণ তো গত রাতেই দিয়ে দিলেন এই ২৮ বছর বয়সী!

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন