বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

ওভাল টেস্টের প্রথম ইনিংসেও তিনি করেছেন মাত্র ১১ রান। সেই রোহিতই দ্বিতীয় ইনিংসে ঘুরে দাঁড়িয়েছেন। বিদেশের মাটিতে তাঁর প্রথম সেঞ্চুরিতে (১২৭ রান) ওভালে ঘুরে দাঁড়িয়েছে ভারতও। প্রথম ইনিংসে ১৯১ রানে অলআউট হওয়া ভারত কাল দ্বিতীয় ইনিংসে ৩ উইকেটে ২৭০ রান তুলে শেষ করেছে তৃতীয় দিনের খেলা। প্রথম ইনিংসে তারা পিছিয়ে ছিল ৯৯ রানে। অথচ হাতে ৭ উইকেট রেখে এখন তারা এগিয়ে ১৭১ রানে।

default-image

দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলে ভারতকে ম্যাচে ফেরানোর পর ‘শেষ সুযোগ’ কাজে লাগানোর কথা বলেছেন রোহিত। এটা দিয়ে হয়তো তিনি ইংল্যান্ডের মাটিতে সেঞ্চুরি করার বিষয়টিই বোঝাতে চেয়েছেন। দিনের খেলা শেষে ভারতের ওপেনার বলেছেন, ‘আমার মনে একটা বিষয় ছিল—আমি জানতাম টেস্ট ক্রিকেটে এটাই আমার শেষ সুযোগ। মানসিকভাবে আমি চ্যালেঞ্জটা নিতে চেয়েছি এবং টপ অর্ডারে ভালো করতে চেয়েছি...আর আমি এর জন্য খুব ভালোভাবেই তৈরি ছিলাম।’

default-image

ওভালে দলের সবচেয়ে প্রয়োজনীয় সময়ে নিজের সর্বোচ্চটা দিয়ে খেলেছেন রোহিত। তাও আবার বিরুদ্ধ কন্ডিশনে। ওভালের মেঘলা আবহাওয়ায় পেসাররা বেশ সহায়তা পান। এমন এক কন্ডিশনে লড়াই করেই রান করতে হয়েছে ভারতের ব্যাটসম্যানদের। সেঞ্চুরি করার পথে রোহিতের প্রথম ৫০ রানের কথাই ধরুন, ১৪৫ বলে করা ফিফটিটি তাঁর টেস্ট ক্যারিয়ারের মন্থরতম। দিনের খেলা শেষে তাই ওভালের সেঞ্চুরির মাহাত্ম্যের কথা এভাবে বললেন রোহিত, ‘আপনি এখানে (ইংল্যান্ড) খেলতে নামলেন আর সেঞ্চুরি পেয়ে গেলেন, বিষয়টি মোটেই এ রকম নয়।’

ওভালে কাল ব্যাটিং করা কতটা কঠিন ছিল সেটা বোঝাতে গিয়ে রোহিত বলেছেন, ‘শটই খেলা যাচ্ছিল না। বিশেষ করে ইংল্যান্ডে ওপেন করতে গেলে শট খেলা খুব কঠিন। সবচেয়ে আনন্দের বিষয় আমি আড়াই শর মতো (২৫৬) বল খেলতে পেরেছি। আর এটাতো আমরা সবাই জানি যে উইকেটে কিছু সময় কাটালে ব্যাট করাটা একটু সহজ হয়ে যায়।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন