শ্রীলঙ্কা সফর শুরু ২৩ সেপ্টেম্বর

বিজ্ঞাপন
default-image
>একসঙ্গে শ্রীলঙ্কা যাবে জাতীয় দল ও হাইপারফরম্যান্স দল।

তারিখটা কয়েক সপ্তাহ ধরেই সবার মুখে শোনা যাচ্ছিল। কিন্তু বিসিবির পক্ষ থেকে কেউ নিশ্চিত করে কিছু বলছিল না। আজ মিরপুরে বিসিবি কার্যালয়ে এক বৈঠক শেষে জাতীয় ও এইচপি (হাইপারফরম্যান্স) দলের শ্রীলঙ্কা সফরের তারিখ চূড়ান্তভাবে জানিয়েছে বিসিবি। সব ঠিক থাকলে আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর এক সঙ্গে শ্রীলঙ্কা যাবে এই দুই দল।

সফরে তিনটি টেস্ট ও তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলার কথা থাকলেও নভেম্বরে শ্রীলঙ্কার ঘরোয়া ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট শুরু হবে বলে শেষ মুহুর্তে সে দেশের বোর্ড টি-টোয়েন্টি সিরিজটি সূচি থেকে বাদ দিয়েছে। এখন হবে শুধু তিনটি টেস্ট। সিরিজের আগে প্রস্তুতি ম্যাচের জন্য শ্রীলঙ্কা থেকে কোনো দল পাওয়া যাবে না বলে বাংলাদেশ থেকেই নেওয়া হচ্ছে এইচপি দলকে।

সভা শেষে বিসিবির হাই পারফরমেন্স ইউনিটের প্রধান নাঈমুর রহমান বলেছেন, 'হাই পারফরম্যান্স দলের শ্রীলঙ্কায় একটা সফর ছিলই। এখন একটু আগে গেলে আমাদের জাতীয় দলের জন্য ভালো হয়। সঙ্গে এইচপির ক্যাম্পটাও করা হলো। আমাদের দেশের করোনা পরিস্থিতি ভালো নয়। সেখানে ক্যাম্প করলেই সুবিধা হবে।'

সভায় আরও ছিলেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী, ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান, হাই পারফরমেন্স ইউনিটের প্রধান নাঈমুর রহমান ও দুই নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন ও হাবিবুল বাশার।

সফরের জন্য জাতীয় দল ও হাই পারফরম্যান্স দল ঘোষণা করা হবে সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে। করোনার কারণে সফর জটিলতার কথা ভেবে জাতীয় দলটা স্বাভাবিকের চেয়ে বড়ই হবে। হাই পারফরম্যান্স দলও হবে দীর্ঘ। জাতীয় দল ও হাই পারফরম্যান্স দল মিলিয়ে প্রায় ৪০ জন ক্রিকেটারের বহর যাবে শ্রীলঙ্কায়।সঙ্গে কোচ, কর্মকর্তারা তো থাকবেনই।

নির্বাচক হাবিবুল বাশার জানান, 'সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে দল যাবে। তার আগে সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে দল ঘোষণা করা হবে। এখন ক্রিকেটার আনা–নেওয়া করা সহজ নয় বলে একটু বেশি ক্রিকেটার নিতে হবে। জাতীয় দলের খেলোয়াড় সংখ্যা ১৫ জনের বেশিই হবে। এইচপির ২৬ জনের দল আছে। চোট না থাকলে ওদের পুরো দলটাই যাবে।'

সিরিজের সূচি এখনো ঘোষণা না হলেও ২৪ অক্টোবর শুরু হতে পারে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার মধ্যকার প্রথম টেস্ট। জাতীয় দল ও হাই পারফরম্যান্স দলের প্রস্তুতি ক্যাম্প দেশেই শুরু হলেও এর বেশিরভাগটা হবে শ্রীলঙ্কাতেই। সফরের প্রথম তিন সপ্তাহের খরচ বিসিবিকে বহন করতে হবে। জাতীয় দল ও হাই পারফরম্যান্স দলের সিরিজ শুরুর ঠিক আগে থেকে তাদের খরচ বহন করবে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন