default-image
>শ্রীলঙ্কা সফর দিয়েই ক্রিকেটে ফিরতে পারেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়ে আইসিসিকে না জানিয়ে এক বছর নিষিদ্ধ হওয়া সাকিব আল হাসানের মুক্তি মিলবে আগামী ২৯ অক্টোবর। বাংলাদেশ দল শ্রীলঙ্কায় প্রথম টেস্ট খেলবে ২৪ অক্টোবর। তিন টেস্ট ম্যাচের সিরিজে প্রথম টেস্টে না হলেও পরের দুই টেস্টে খেলার খেলতে সাকিবের বাধা নেই।

সুযোগটা বিসিবিও নিতে চাচ্ছে। সাকিবকে নিয়েই শ্রীলঙ্কা সিরিজের দল সাজানোর ভাবনা বিসিবির। আজ বিসিবি কার্যালয়ে সভা শেষে ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান বলেছেন, ‘সে আমাদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ একজন খেলোয়াড়। সে দলে থাকলে বাংলাদেশের শক্তি অনেক বেড়ে যায়। সুতরাং এটাতো আমাদের মাথায় আছেই।’

তবে আইসিসির নিয়ম নিয়ে কিছু ধোঁয়াশা থাকায় বিসিবি সাকিবের ব্যাপারে ধীরে চল নীতিতে এগোতে চাচ্ছে, ‘সাকিবের ব্যাপারে আমরা কথাবার্তা বলেছি। আরও আলোচনার বিষয় আছে। মানে কী নিয়ম আছে, আইসিসি থেকে সেটা আমরা জেনে তারপরেই অগ্রসর হব। এখনো ব্যাপারটা নিয়ে আলাপ-আলোচনার বাকি আছে।’

সাকিবও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার প্রস্তুতি শুরু করতে যাচ্ছেন দ্রুতই। আগামী মাস থেকে সাকিব বিকেএসপিতে ব্যক্তিগত অনুশীলন শুরু করবেন। কদিন আগে ইএসপিএন ক্রিকইনফোর এক সাক্ষাৎকারে সাকিব বলেছেন, ‘তিন মাস সময় পাব নিজেকে ভালো মতো প্রস্তুত করার জন্য। আমি এত দিন কিছু করিনি। এই তিন মাসই যথেষ্ট, নিজেকে ক্রিকেটের জন্য আদর্শ গড়নে নিয়ে যাওয়ার জন্য। আপাতত এটাই পরিকল্পনা। আগামী দুই সপ্তাহ মেয়েদের দেখাশোনা করেই কাটবে, পরিবারের সঙ্গে কাটাব। এরপর আমি ক্রিকেটে মনোযোগ দেব।’

সাকিব বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাডিসন শহরে পরিবারের সঙ্গে আছেন। করোনার শুরুতে পরিবারকে সময় দিতে যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0