বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

রান তাড়া তো নয়, যেন বাড়ি ফেরার তাড়া ছিল লক্ষ্ণৌর ব্যাটসম্যানদের। এক দীপক হুদা ছাড়া বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি কোনো ব্যাটসম্যানই। চতুর্থ ওভারে ১৯ রানে প্রথম উইকেট পতনের পর ক্রিজে আসা হুদা ফিরেছেন নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে ১৪তম ওভারের প্রথম বলে। গুজরাটের রান তখন ৭০। পরের তিন বলে আবেশ খান দুই ছক্কায় ১২ রান তোলার পর রশিদ খানের চতুর্থ শিকার হতেই শেষ গুজরাটের ইনিংস।

default-image

২৬ বলে ৩ চারে ২৭ করেছেন হুদা। আবেশের ৪ বলে ১২ রানের পর তৃতীয় সর্বোচ্চ ১১ রান (১০ বল) দক্ষিণ আফ্রিকান উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান কুইন্টন ডি ককের। দলটির অধিনায়ক লোকেশ রাহুল করেছেন ৮ রান। গুজরাটের আফগান লেগ স্পিনার রশিদ খান ২৪ রানে নিয়েছেন ৪ উইকেট। আইপিএল অভিষিক্ত বাঁহাতি স্পিনার রবিশ্রীনিবাসন সাই কিশোর ৭ রানে ও বাঁহাতি পেসার যশ দয়াল ২৪ রানে নিয়েছেন ২টি করে উইকেট।

এর আগে গুজরাটের ইনিংসে সর্বোচ্চ ৬৩ রান উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান শুবমান গিলের। ৪৯ বলে ৭ চারে ৬৩ রান তুলে অপরাজিত ছিলেন ভারতের হয়ে ১০টি টেস্ট খেলা ব্যাটসম্যান। ২৪ বলে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৬ রান ডেভিড মিলারের। এ ছাড়া ১৬ বলে অপরাজিত ২২ রান করেন রাহুল তেওয়াতিয়া। গুজরাট শেষ ১০ ওভারে তুলেছে ৮৫ রান।

দুদলের পার্থক্য গড়ে দেওয়া অর্ধশতকের জন্য ম্যাচসেরা হয়েছেন শুবমান গিল।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন