পরশু খেলবেন তো সাকিব?
পরশু খেলবেন তো সাকিব?ছবি: প্রথম আলো

গত তিন দিন অনুশীলনে ব্যাটিং-বোলিং করছেন। কিন্তু কুঁচকির চোট থেকে এখনো সাকিব আল হাসান সম্পূর্ণ সুস্থ হননি। দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো অবশ্য সাকিবকে প্রথম টেস্টের আগে সম্পূর্ণ সুস্থ অবস্থায় পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে বোলিংয়ের সময় চোটে পড়েন সাকিব। এরপর দুই দিন বিশ্রামের পর ফিরে সতর্ক অনুশীলন করেন। গতকাল দলের বিশ্রামের দিনও অনুশীলনে যান সাকিব। আজও দলের সঙ্গে ব্যাটিং-বোলিং অনুশীলন করেন এই বাঁহাতি অলরাউন্ডার। ৩ ফেব্রুয়ারির আগে আরেক দিন অনুশীলনে সাকিবকে দেখার সুযোগ আছে টিম ম্যানেজমেন্টের।

বিজ্ঞাপন
default-image

প্রধান কোচও আত্মবিশ্বাসী, সাকিবকে মূল একাদশে নিয়ে মাঠে নামতে পারবে বাংলাদেশ। আজ অনুশীলন শেষে এক ভিডিও বার্তায় ডমিঙ্গো বলেন, ‘অবশ্যই সাকিব আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একজন খেলোয়াড়। সে আমাদের ব্যাটিং ও বোলিংয়ের স্তম্ভ। সে বিশ্বমানের একজন অলরাউন্ডার। তিন সংস্করণে তার বিকল্প পাওয়া কঠিন। তার প্রস্তুতি পর্ব সহজ ছিল না। শেষ ওয়ানডেতে কুঁচকিতে চোট পেয়েছিল। তাকে পুনর্বাসনেও যেতে হয়েছে। এখনো সে শতভাগ ফিট নয়। যদিও একদিন বাকি আছে। আমরা আত্মবিশ্বাসী বুধবার শুরু হতে যাওয়া প্রথম টেস্টে তাকে নিয়ে মাঠে নামতে পারব। পুনর্বাসনে সে যথেষ্ট নিবেদন দেখিয়েছে। অনেক বোলিং করেছে এবং নেটে নিজেকে ঝালিয়ে নিয়েছে। অস্বস্তি দেখা যায়নি। তাকে প্রথম টেস্টে পেতে আমরা আত্মবিশ্বাসী।’

default-image

গতকাল ব্যক্তিগত অনুশীলনে ডমিঙ্গোকে বোলিং করে গা গরম করেন সাকিব। এর আগে ব্যাটিংয়ে নেট বোলার ও থ্রো ডাউনের বিপক্ষে ব্যাটিং করেন। আজ ডমিঙ্গো জানালেন, টেস্টে দুই শর বেশি উইকেটের মালিক সাকিবের বোলিংয়ে ব্যাটিং করার অনুভূতির কথা, ‘বিশ্বমানের বোলারকে খেলা দারুণ চ্যালেঞ্জিং ছিল। দারুণ সময় কাটিয়েছি এবং এটি সব সময়ই ভালো পরিস্থিতি একটু হালকা করে দেয়।’

সাকিব সর্বশেষ টেস্ট খেলেছিলেন এই চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামেই। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে। সেই ম্যাচে অধিনায়ক ছিলেন সাকিবই। বৃষ্টি–বাধার সেই ম্যাচে বাংলাদেশ আফগানিস্তানের কাছে টেস্ট হারে। একই মাঠেই সাকিব ফিরছেন টেস্ট ক্রিকেটে। শেষবার জহুর আহমেদে টেস্ট হারের দুঃসহ স্মৃতি ভুলে এবার নিশ্চয়ই ভালো কিছু করতে মুখিয়ে থাকবেন সাকিব। গত কয়েক দিনে অনুশীলনে সাকিবের শরীরী ভাষা তেমন কিছুরই ইঙ্গিত দেয়।

বিজ্ঞাপন
ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন