বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

কাল সংবাদ সম্মেলনে এসে দলের বোলিং কোচ ওটিস গিবসন, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন পেসার নিয়ে খেলার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। কিন্তু সেটি তিনি বলেছিলেন সাইফউদ্দিনকে ধরেই। মোস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে সাইফউদ্দিন আর একজন পেসার—ভাবনাটা ছিল এমনই।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তাসকিন আহমেদকে বসিয়ে খেলানো হয়েছিল বাঁ হাতি স্পিনার নাসুম আহমেদকে। তিনি দুই উইকেট পেলেও খুব কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারেননি। এখন সাইফউদ্দিন ছিটকে যাওয়ায় দলের একাদশ কেমন হবে—এটা নিয়ে থাকছে ধোঁয়াশা।

default-image

সাইফউদ্দিনের চোটটা হঠাৎ করেই। তাই দলের সঙ্গে স্ট্যান্ডবাই হিসেবে থাকা রুবেল হোসেনকেই ‘বদলি’ হিসেবে নেওয়া হয়েছে। আজ রুবেল কি খেলবেন? অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে বাংলাদেশের অভিজ্ঞ এই পেসারের আজ খেলার সম্ভাবনা খুবই কম। সাইফউদ্দিনের জায়গায় তাসকিনই ফিরতে পারেন একাদশে। তিন পেসারের ফর্মুলায় আজ বাঁ হাতি পেসার শরীফুল ইসলাম খেললে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে লিটন দাস ফর্মে নেই। তবে তাঁকে আজও খেলানো হবে বলে মনে করেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল। তিনি লিটনকে আরও একটু সময় দেওয়ার পক্ষে।

default-image

তবে তিনি আফিফ হোসেনের ব্যাটিং পজিশন নিয়ে কিছুটা প্রশ্ন তুলেছেন, ‘আমি মনে করি আফিফের কাছ থেকে যে ফিনিশারের ভূমিকাটা আমরা চাচ্ছি, সেটি মাহমুদউল্লারই নেওয়া উচিত।’ তিনি ফিনিশারের ভূমিকা সাইফউদ্দিনকে নেওয়ার কথাও বলেছিলেন। কিন্তু সাইফউদ্দিনকে তো এ ম্যাচে পাচ্ছে না। নুরুল হাসান ভালো উইকেটকিপার হলেও তাঁর ব্যাটিং ফর্ম ভালো লাগছে না জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়কের ‘আমরা দলে তিন উইকেটকিপার নিয়ে ঘুরছি। নুরুল খুব ভালো কিপার কিন্তু তাঁর ব্যাটে রান নেই। আমি নুরুলের জায়গায় একজন অতিরিক্ত বোলার খেলানোর পক্ষে। উইকেটকিপিংটা না হয় লিটন বা মুশফিকই করুক।’

সাইফউদ্দিনের ছিটকে যাওয়া সমস্যায় ফেলেছে দলকে। এখন দেখার বিষয় সমস্যার সমাধান কীভাবে করে টিম ম্যানেজমেন্ট।

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন