বিজ্ঞাপন

সাকিবের ওপর এখন থাকলেন শুধু ভারতের দুজন। ১৯ বার সিরিজসেরার পুরস্কার নিয়ে সবার ওপরে ভারত কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার। এরপর ১৭ বার জিতেছেন ভারতের বর্তমান অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

default-image

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে সাকিব নিয়েছিলেন ৫ উইকেট। দ্বিতীয় মাচে খেলেন ৯৬ রানের অপরাজিত ইনিংস। দ্বিতীয় ম্যাচে সেরা খেলোয়াড়ও হয়েছিলেন তিনি। সব মিলিয়ে এ সিরিজে সাকিব ৭২.৫০ গড়ে করেছেন ১৪৫ রান।

পাশাপাশি ৮ উইকেট নিয়েছেন ১৪.৭৫ গড়ে। ওয়ানডেতে সাকিব সিরিজসেরা খেলোয়াড় হলেন এ নিয়ে ৭ম বার। বাংলাদেশে এ সংস্করণে সাকিবের পরই আছেন মুশফিকুর রহিম ও তামিম ইকবাল। দুজনেই সিরিজসেরা হয়েছেন ৫ বার করে।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ জেতার পর সাকিব বলেছেন, এটি সব সময়ই বিশেষ অনুভূতি, ‘ভালোই লেগেছে দলের জন্য অবদান রাখতে পেরে। এটা সব সময়ই বিশেষ কিছু। আর জিম্বাবুয়েতে তাদের মাটিতে ৩-০ ব্যবধানে হারানো সহজ নয়। কৃতিত্ব দিতে হবে পুরো দলকে, তারা যেভাবে ৩টা ম্যাচ খেলেছে।’

তবে এখনো উন্নতির সুযোগ দেখছেন সাকিব, ‘যেভাবে অবদান রাখতে পেরেছি খুশি। তবে ভালোর তো কোনো শেষ নেই। আরও ভালো করতে পারলে আরও ভালো লাগত, তবে যেভাবে সিরিজটা গেল, তাতে আরও খুশি।’

ক্রিকেট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন