সাতে সাত অস্ট্রেলিয়ার

বিজ্ঞাপন
default-image

এ পর্যন্ত ১৪টি দিবারাত্রির টেস্ট হয়েছে ছেলেদের ক্রিকেটে। সাতটি ম্যাচেই এর একটি দল ছিল অস্ট্রেলিয়া। নিজেদের মাঠে খেলা সবগুলো ম্যাচেই জয়ের হাসি হেসেছে অস্ট্রেলিয়া। সর্বশেষ ম্যাচটি আজ পার্থে শেষ হলো। নিউজিল্যান্ডকে ২৯৬ রানে হারিয়ে তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়া।

দুই দলই দশজনের দলে রুপ নিয়েছিল এ টেস্টে। দ্বিতীয় ইনিংসে তাই ৯ উইকেটে ২১৭ রান তুলতেই অস্ট্রেলিয়াকে থেমে যেতে হলো। চোটাক্রান্ত জশ হ্যাজলউডকে দরকার হলে ব্যাটিংয়ে নামানোর পরিকল্পনা ছিল স্বাগতিকদের। কিন্তু ৪৬৭ রানের লিড নেওয়া এক দলের জন্য হ্যামস্ট্রিংয়ের জন্য ছিটকে যাওয়া এক বোলারকে ব্যাটিংয়ে নামানো বাড়াবাড়ি। তেমন কিছু করার ইচ্ছা হয়নি টিম পেইনের।

জিততে হলে সব ধরণের টেস্টের রান তাড়ার বিশ্ব রেকর্ড করতে হতো নিউজিল্যান্ডকে। আর দিবারাত্রির টেস্টে চার শ ছাড়ানো স্কোর তাড়া করে জেতা প্রায় অসম্ভব। নিউজিল্যান্ডের হারটা প্রথম ঘন্টাতেই নিশ্চিত করে দিয়েছেন মিচেল স্টার্ক ও নাথান লায়ন। ৫৭ রানের মধ্যে প্রথম চার ব্যাটসম্যানকে তুলে নিয়েছেন দুজন। বিজে ওয়াটলিং দুবার হেনরি নিকোলস ও কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেছেন। কিন্তু ৪১ ও ৫৬ রানের জুটি দুটি শুধু জয়ের ব্যবধানই কমিয়েছে। লায়নের সঙ্গে প্যাট কামিন্সও যোগ দেওয়ায় ১৫৪ রানেই তিন উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। ১৬৩ রানে নবম উইকেট হারানোর পর চোটাক্রান্ত লকি ফার্গুসনকেও নামিয়ে দেয় নিউজিল্যান্ড।

চোটের কারণে টেস্ট অভিষেকে মাত্র ১১ ওভার করা ফার্গুসনকে পেয়ে শেষ উইকেট মাত্র ৮ রান যোগ করতে পেরেছেন টিম সাউদি। এই পেসারকে তুলে নিয়ে নিজের চতুর্থ উইকেট বুঝে নেওয়ার পাশাপাশি নিউজিল্যান্ডকে ১৭১ রানেই অলআউট করে দিয়েছেন। তবে ম্যাচে ৯৭ রানে ৯ উইকেট তুলে নিয়ে ম্যাচ সেরা স্টার্ক।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন